"সবচেয়ে বেশি লাভবান কে?": পুলওয়ামা হামলার বর্ষপূর্তিতে রাহুল গান্ধির ৩ প্রশ্ন

Pulwama Attack: সেনাবাহিনীর কনভয় লক্ষ্য করে চালানো ওই হামলায় প্রায় ২৫০০ সিআরপিএফ জওয়ানের মধ্যে শহিদ হন ৪০ জন

Pulwama: রাহুল গান্ধি এই হামলার তদন্তের ফলাফল সম্পর্কেও প্রশ্ন তোলেন (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • শুক্রবার পুলওয়ামা হামলার বর্ষপূর্তিতে কেন্দ্রকে আক্রমণ রাহুল গান্ধির
  • "এই হামলায় কারা সবচেয়ে বেশি লাভবান হয়েছে", প্রশ্ন তুললেন কংগ্রেস সাংসদ
  • পুলওয়ামা হামলার তদন্ত সম্বন্ধেও জানতে চান তিনি
নয়া দিল্লি:

দেখতে দেখতে কাশ্মীরের পুলওয়ামা (Pulwama) হামলার একটি বছর পার হয়ে গেল। ওই পুলওয়ামা সন্ত্রাস হামলায় বর্ষপূর্তিতে নিহত ৪০ সেনাকে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং সরকারের অন্য প্রতিনিধিরা। তবে শুক্রবারই এই হামলা নিয়ে ফের প্রশ্ন তোলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি। একটি টুইটে হামলার নেপথ্যে নিরাপত্তা ব্যবস্থার গলদের দিকে আঙুল তুলে ওই কংগ্রেস সাংসদ (Rahul Gandhi) পুলওয়ামা (Pulwama Attack) তদন্তের ফলাফল নিয়েও জানতে চান। রাহুল গান্ধির এমন মন্তব্যকে "দেশের জন্য আত্মত্যাগকারী শহিদদের প্রতি যথেষ্ট অপমানজনক", বলে দাবি করেছে কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপি । 

"আজ আমরা পুলওয়ামা হামলায় শহিদ ৪০ জন জওয়ানের স্মৃতিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করছি। আজ কয়েকটি প্রশ্ন করা যাক। প্রথমত- এই হামলায় সবচেয়ে বেশি লাভবান কারা হয়েছে? দ্বিতীয়ত- হামলার তদন্তের ফলাফল কী? তৃতীয়ত- সুরক্ষার গাফিলতির কারণে যে হামলা হয়, তার জন্য বিজেপি সরকারের মধ্যে ঠিক কাকে দায়ী করা হয়েছে?", শুক্রবার সকালে টুইট করেন রাহুল গান্ধি।

রাহুল গান্ধির এই টুইটের তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বিজেপি বলে: "রাহুল গান্ধি এলইটি, জৈশ-ই-মহম্মদের প্রতি একজন সহানুভূতিশীল ব্যক্তি বলে পরিচিত; তিনি কেবল সরকারকেই নয়, দেশের নিরাপত্তা বাহিনীকেও আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু করেছেন।" পাশাপাশি কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন দলটি আরও বলেছে, তাঁর এই জাতীয় মন্তব্য পাকিস্তানকে বিশ্বের দরবারে ভারতের প্রশ্নের মোকাবিলা করতে সহায়তা করে।

‘‘বালাকোটের পর আমরা পাক সেনাকে আক্রমণ করতে প্রস্তুত ছিলাম'': প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান

গত বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটে। জৈশ-ই-মহম্মদ সন্ত্রাসবাদী সংগঠন এই হামলার দায় স্বীকার করে। সেনাবাহিনীর কনভয় লক্ষ্য করে চালানো ওই আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় প্রায় ২৫০০ সিআরপিএফ জওয়ানের মধ্যে শহিদ হন ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ান। সাম্প্রতিককালে এই হামলাকে ভয়াবহ বলে বর্ণনা করা হয়। এরপরই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে এই হামলা নিয়ে তীব্র চাপানউতোর শুরু হয়। প্রায় যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি তৈরি হয় সেই সময়। জঙ্গি ঘাঁটি ভাঙতে ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইক চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা।

National Unity Day: পুলওয়ামায় নিহত সেনার স্ত্রীর হাত থেকে বিশেষ সম্মান গ্রহণ করলেন মোদি

এদিকে পুলওয়ামা হামলার বর্ষপূর্তিতে শহিদ জওয়ানদের স্মৃতিতে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি টুইটে লেখেন, ‘গতবছরের ভয়াবহ পুলওয়ামা হামলায় প্রাণ হারানো সাহসী শহিদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধার্ঘ্য। যাঁরা আমাদের দেশের সুরক্ষায় জীবন উৎসর্গ করেছিলেন তাঁরা প্রত্যেকেই ব্যতিক্রমী। ভারত এই শহিদদের আত্মত্যাগ ও বীরত্ব কোনও দিনও ভুলবে না।'

More News