বাবা রাজীব গান্ধির তোলা ছবি পোস্ট করে চিন-ভারত সংঘর্ষ নিয়ে কেন্দ্রকে আক্রমণ রাহুল গান্ধির

“আমরা চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়েছি। চিন কি ভারতীয় অঞ্চল দখল করেছে?” রাহুল গান্ধি একটি ছবি দিয়ে হিন্দিতে টুইট করেছেন।

“আমরা চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়েছি।" হিন্দিতে টুইট করেছেন রাহুল গান্ধি

নয়াদিল্লি:

চিনের আগ্রাসন নিয়ে সরকারকে বারেবারে প্রশ্নবাণে বিদ্ধ করছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি। মঙ্গলবার প্রয়াত বাবা তথা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধির তোলা লাদাখের প্যাংগং সো হ্রদের একটি ছবি পোস্ট করে ফের কেন্দ্রকে আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস সাংসদ। “আমরা চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়েছি। চিন কি ভারতীয় অঞ্চল দখল করেছে?” রাহুল গান্ধি একটি ছবি দিয়ে হিন্দিতে টুইট করেছেন, ক্যাপশনে লিখেছেন “ছবি সৌজন্যে: রাজীব গান্ধি”। তিব্বতের মালভূমিতে ১৪,০০০ ফুট উঁচুতে অবস্থিত হিমবাহ হ্রদ প্যাংগং সো হ'ল প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বা এলএসি-র নিকটবর্তী পয়েন্টগুলির মধ্যে একটি। এটি ভারত এবং চিনের বিভাজনকারী ডি-ফ্যাক্টো সীমান্ত যেখানে গত মাসে ভারতীয় ও চিনা সৈন্যদের সংঘর্ষ হয়।

কংগ্রেস সাংসদ প্রতিদিন পোস্ট করছেন, প্রায়শই দিনে একাধিক বারও। এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তথা কেন্দ্র সরকারকে চিন সীমান্তে সংকট নিয়ে টানা আক্রমণ করে চলেছেন। বিশেষত ১৫ জুনের সংঘর্ষের পরে, যে লড়াইয়ে ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছেন।

গত তিন দিন ধরে, রাহুল গান্ধি শুক্রবার সর্বদল বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদির মন্তব্যের উপরেই মনোনিবেশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে বলেছিলেন, “আমাদের অঞ্চলের ভেতরে কেউ ঢোকেনি বা আমাদের কোনও ছাউনিও দখল হয়নি।"

কংগ্রেস এই বিবৃতিটিকেই তুলে ধরে প্রশ্নবাণ নিক্ষেপ করেছে যে, তাহলে কি প্রধানমন্ত্রী বলতে চাইছেন ভারতীয় অঞ্চলকে চিনের তুলে দেওয়া হয়েছে? শনিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় জানিয়েছে যে প্রধানমন্ত্রী মোদির মন্তব্যের ‘অপব্যাখ্যা' করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

“প্রধানমন্ত্রীর পর্যবেক্ষণ যে আমাদের পক্ষের এলএসি-এর দিকে চিনের কোনও উপস্থিতি ছিল না এবং তা আমাদের সশস্ত্র বাহিনীর সাহসিকতার নিদর্শন। ১৬ বিহার রেজিমেন্টের সৈন্যদের আত্মত্যাগ চিনের প্রয়াসকে ব্যর্থ করে দিয়েছে,” সরকার বলেছে।

রবিবার রাহুল গান্ধি একটি বিদেশি প্রকাশনার নিবন্ধ পোস্ট করে বলেছিলেন: “নরেন্দ্র মোদি আসলে সারেন্ডার মোদি”।

গতকাল কংগ্রেস সাংসদ টুইট করেছিলেন: “এই বিরোধের সময় কেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসা করছে চিন?” প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য বিষয়ে তিনি চিনের মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসের একটি সংবাদ প্রতিবেদনও পোস্ট করেন।