আত্মরক্ষার্থে পুরুষদের কাছ থেকে অধিকার ছিনিয়ে নিন: প্রিয়াঙ্কা গান্ধি

Unnao Rape: আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করে কংগ্রেস নেত্রী বলেন, "উন্নাওতে গত ১১ মাসে ধর্ষণের প্রায় ৯০ টি ঘটনা ঘটেছে"

আত্মরক্ষার্থে পুরুষদের কাছ থেকে অধিকার ছিনিয়ে নিন: প্রিয়াঙ্কা গান্ধি

কংগ্রেস সর্বস্তরে নারীর অধিকারের জন্য লড়াই করবে: Priyanka Gandhi Vadra

হাইলাইটস

  • পুরুষের কাছ থেকে অধিকার ছিনিয়ে নিন, বলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি ভদরা
  • উত্তরপ্রদেশ সরকারকে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আক্রমণ করেন তিনি
  • সরকারকে মহিলাদের বিরুদ্ধে নির্যাতন রুখতে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেন
লখনউ:

কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধি ভদরা (Priyanka Gandhi Vadra) শুক্রবার মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং তাঁদেরকে এই ধরণের অপরাধ থেকে রক্ষা করার জন্য "পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে নেওয়ার", আহ্বান জানান। "আমি বলব যে মহিলাদের সমাজে ক্ষমতা পাওয়া উচিত। আমি আমার বোনেদের বলব পুরুষদের কাছ থেকে ক্ষমতা ছিনিয়ে আনুন, পঞ্চায়েত ও বিধানসভা নির্বাচন লড়ুন এবং রাজনীতিতে এগিয়ে আসুন, আপনি ক্ষমতা হাতে নিন এবং এই জাতীয় ঘটনাগুলি ঘটে যখন নিজেই নিজের আত্মরক্ষা করুন", এক আলাপচারিতায় বলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি। কংগ্রেস নেতা উত্তরপ্রদেশে দু'দিনের সফরে রয়েছেন, তিনি (Congress General Secretary) সেখানে গিয়ে উল্লেখ করেন এই কথা। তাঁর দল কংগ্রেস সর্বস্তরের নারীর অধিকারের জন্যেই লড়াই করবে, এ কথাও জানান তিনি।

উত্তরপ্রদেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, বিশেষত মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ যেভাবে বাড়ছে তা নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, "উন্নাওতে দেখা গেছে যে গত ১১ মাসে প্রায় ৯০ টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।" 

"শেষ ঘটনাটির কথা জানার পরেও সরকার শেষ পর্যন্ত অপরাধীদের রক্ষা করতে চেয়ে ছিল। আপনি ভাবতে পারেন যে এই মহিলার পক্ষে যুদ্ধ করা কতটা কঠিন", তিনি উন্নাও ধর্ষণ মামলার কথা উল্লেখ করেন, যেখানে অভিযুক্ত ছিলেন একজন বিজেপি বিধায়ক।

উন্নাওয়ের মহিলার মৃত্যু "অত্যন্ত দুঃখজনক", ফাস্ট ট্র্যাক আদালতে বিচার হবে, বলেন যোগী আদিত্যনাথ

"মৈনপুরীতে, সম্ভালে কী ঘটেছিল আপনি নিশ্চয়ই দেখেছেন? এই পরিস্থিতিতে  মহিলারা কীভাবে এই সরকারের প্রতি বিশ্বাস রাখতে পারবেন? মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের ক্ষেত্রে উত্তরপ্রদেশ এক নম্বর রাজ্যে পরিণত হয়েছে।  এই পরিস্থিতিতে সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী কী বলছেন এবং এগুলো আটকাতে তিনি কী ব্যবস্থা নিয়েছেন?", উত্তরপ্রদেশ সরকারকে লক্ষ্য করে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন প্রিয়াঙ্কা।

ওই কংগ্রেস নেত্রী বলেন, এটা একেবারে জরুরি অবস্থার মতো পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছে।  ক্ষতিগ্রস্থদের যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সহায়তা দেওয়ার জন্য সরকারকে পরামর্শও দেন তিনি।

"আমার পরামর্শ হ'ল মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি সেল স্থাপন করা হোক যেখানে প্রতিটি জেলার এসপি সরাসরি মহিলাদের করা অভিযোগ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এফআইআর দায়ের করা উচিত এবং মহিলাদের নিরাপত্তা বাড়ানো উচিত", বলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধি।

তিনি বলেন, "কিন্তু আপনি অপরাধীদের নিরাপত্তা দিচ্ছেন। এটা কোনও রাজনৈতিক সমস্যা নয়। এই সব ঘটনা নারীর নিরাপত্তার জন্য উদ্বেগজনক এবং সর্বাত্মক গুরুত্ব সহকারে বিষয়টি দেখা উচিত", জোর দিয়ে বলেন তিনি।

"ওদের গুলি করে মারা উচিত", বললেন উন্নাওয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ধর্ষিতার বাবা

হায়দরাবাদ ধর্ষণ কাণ্ডে অভিযুক্তদের হত্যার বিষয়ে তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, "আমি স্পষ্ট করেই বলেছি যে আইন-শৃঙ্খলা নিশ্চিত করা সংশ্লিষ্ট সরকারের দায়িত্ব। আমি এই ঘটনার বিস্তারিত বিবরণ জানি না এবং তাই পুরোটা না জেনে এ বিষয়ে মন্তব্য করা আমার পক্ষে ঠিক নয়"।

তিনি বলেন, "পরিস্থিতি যা দাঁড়িয়েছে তাতে মহিলারা ঘর থেকে বেরোতে ​​ভয় পায় এবং তাঁদের ভয় দেখানো হলেও সরকার থেকে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয় না। উন্নাও মামলায় এফআইআর দায়ের করতে চার মাস সময় লেগেছিল এবং সেটাও হয়েছে আদালতের নির্দেশ পাওয়ার পরেই"। 

মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধ মোকাবিলায় আরও কঠোর আইন দরকার কিনা তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, "নির্ভয়া মামলার পরে আইন আরও কড়া হয়েছে এবং এখন প্রয়োজন সেগুলি কার্যকর করার।"

দেখে নিন এই খবরগুলোও:

More News