গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে বাংলাকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্যে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন অধীর চৌধুরী

West Bengal: পশ্চিমবঙ্গেও "লকডাউনের ফলে লক্ষাধিক পরিযায়ী কর্মী কাজ হারিয়ে নিজের গ্রামে ফিরে এসেছেন", মোদিকে চিঠিতে লিখেছেন এরাজ্যের কংগ্রেস সাংসদ

গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে বাংলাকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্যে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন অধীর চৌধুরী

Adhir Ranjan Chowdhury: প্রধানমন্ত্রী মোদিকে চিঠি লিখলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • শনিবার ৫০,০০০ কোটি টাকার কর্মসংস্থান প্রকল্পের সূচনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী
  • গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের মধ্যে নেই পশ্চিমবঙ্গের নাম
  • এই প্রকল্পে বাংলাকেও রাখা হোক, অনুরোধ করে মোদিকে চিঠি লিখলেন অধীর চৌধুরী
নয়া দিল্লি:

কেন্দ্রীয় সরকারের নয়া কর্মসংস্থান প্রকল্প গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে (Garib Kalyan Rojgar Abhiyaan) বাংলাকে (West Bengal) অন্তর্ভুক্ত করার অনুরোধ করে রবিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Narendra Modi) চিঠি লিখলেন কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। "আমি আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করে জানাচ্ছি যে, আপনি ইতিমধ্যেই যে গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের ঘোষণা করেছেন, তার মধ্যে ৬টি রাজ্যের ১১৬ টি জেলা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে এবং ওই প্রকল্পের আওতায় কাজ হারিয়ে ভিনরাজ্য থেকে ঘরে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকরা ১২৫ দিনের কাজ পাবেন", চিঠিটি এভাবেই শুরু করেছেন এই কংগ্রেস সাংসদ (Adhir Ranjan Chowdhury)।  "এই কর্মসূচির আওতায় আসার জন্যে মানদণ্ডটি হল, সেই সেই জেলাগুলিকেই এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে যেখানে পরিযায়ী শ্রমিকদের জনসংখ্যা ন্যূনতম পঁচিশ হাজার, এবং লকডাউনের কারণে কাজ হারিয়ে তাঁরা নিজেদের গ্রামে ফিরে আসতে বাধ্য হয়েছে"। এরপরেই চিঠিতে বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের হয়ে তদ্বির করেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী। 

কাজ পাবেন পরিযায়ীরা? ৫০ হাজার কোটি টাকার কর্মসংস্থান প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

এই কংগ্রেস নেতা চিঠিতে লেখেন যে, পশ্চিমবঙ্গেও "লকডাউনের ফলে লক্ষাধিক পরিযায়ী কর্মী কাজ হারিয়ে নিজের গ্রামে ফিরে এসেছেন এবং তখন থেকেই তাঁরা বেকার, অসহায় ও নিরাশ অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন"। 

মস্কো সফরের আগে চিন সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করলেন রাজনাথ সিং

প্রধানমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে অধীর আরও লেখেন, "পশ্চিমবঙ্গও ভারতের অন্যতম প্রধান রাজ্য যেখানে বিশাল সংখ্যক পরিযায়ী শ্রমিত বাস করেন। তবে আমি অবাক হয়ে গেছি এটা দেখে যে, পশ্চিমবঙ্গের একটি জেলাকেও গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি"।

পশ্চিমবঙ্গের সেই জেলাগুলিকেও গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানের অন্তর্ভুক্ত করা হোক যেগুলিতে বহু পরিযায়ী শ্রমিক রয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে এই আবেদনই করেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী। 

ভারতের গ্রামাঞ্চলে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করতে এবং করোনা ভাইরাসকে রুখতে জারি লকডাউনের সময় দেশে ফিরে আসা লক্ষ লক্ষ শ্রমিককে কাজের সন্ধান দিতে চালু হয়েছে 'গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান'। শনিবার ৫০,০০০ কোটি টাকার ওই প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। 

আপাতত বিহার, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা ও রাজস্থান - এই ৬টি রাজ্যের ১১৬ টি জেলায় বাস করে পরিযায়ী শ্রমিকদের 'গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান' প্রকল্পের মাধ্যমে ১২৫ দিনের কাজ মিলবে। এইসব রাজ্যের প্রত্যেকটিতেই করোনা ভাইরাসের কারণে যে লকডাউন করা হয় তার জন্যে বেকার হয়ে ঘরে ফিরছেন প্রচুর শ্রমিক। এই কর্মসূচীটির মাধ্যমে দেশের গ্রামীণ অঞ্চলে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। প্রকল্পটি গ্রামীণ অঞ্চলে জনমুখী পরিকাঠামো তৈরি করতেই ব্যবহার করা হবে। প্রত্যেক ব্যক্তিকেই দক্ষতার ভিত্তিতে চাকরি দেওয়ারও চেষ্টা করা হবে, বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)