খাঁচায় ফসকে গিয়ে তিন হিংস্র পান্ডার মুখোমুখি খুদে....তারপর! দেখুন ভাইরাল ভিডিও

চিনের একটি পশু সংরক্ষণালয়ে পান্ডার আস্তানায় পড়ে যায় একটি আট বছরের বাচ্চা মেয়ে। গত শনিবার জায়ান্ট পান্ডা প্রজননের জন্য তৈরি হওয়া চেনংডু রিসার্চ বেসে এই ভয়ানক ঘটনাটি ঘটে, আট বছরের ছোট্ট মেয়েটি ঘিরে ধরে তিনটি পান্ডা।

খাঁচায় ফসকে গিয়ে তিন হিংস্র পান্ডার মুখোমুখি খুদে....তারপর! দেখুন ভাইরাল ভিডিও

গত শনিবার চিনে পান্ডার খাঁচায় পড়ে যায় আট বছরের এই বাচ্চাটি

হিংস্র বাঘের খাঁচায় ঢুকে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন অনেকেই। কিন্তু পান্ডার খাঁচায় কেউ ঢুকে পড়লে? সেটাও তেমনই ভয়ঙ্কর কি? আপাতভাবে দেখতে মিষ্টি, নিরীহ হলেও এই পান্ডারই খাঁচায় ভুল করে ঢুকে পড়া বাচ্চার ভিডিও নেটিজেনদের স্তব্ধ করে দিয়েছে। চিনের একটি পশু সংরক্ষণালয়ে পান্ডার আস্তানায় পড়ে যায় একটি আট বছরের বাচ্চা মেয়ে। গত শনিবার জায়ান্ট পান্ডা প্রজননের জন্য তৈরি হওয়া চেনংডু রিসার্চ বেসে এই ভয়ানক ঘটনাটি ঘটে, আট বছরের ছোট্ট মেয়েটি ঘিরে ধরে তিনটি পান্ডা।

প্রবাসে বীণার বশে! সরস্বতীর আরাধনায় এডিনবরার বাঙালিরা

চিনা দৈনিকের মতে, এই ভয়ঙ্কর ঘটনাটির পরে সিচুয়ান প্রদেশের গবেষণামূলক ব্যবস্থাপনা সংস্থা একটি সতর্কতা জারি করে বলে: পান্ডারা যতখানি মিষ্টি দেখতে, যতখানি নম্র ঠিক ততখানিই তারা নয়। এমনকি পান্ডার দেখভাল করেন যারা তাঁরাও তাঁদের থেকে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রাখেন। পান্ডাদের বয়স ২ বছর হয়ে গেলেই তাঁদের থেকে দূরে থাকাই উচিৎ।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে মেয়েটি পান্ডার বাসার মধ্যে পড়ে গিয়ে ভয়ে সিঁটিয়ে রয়েছে। দুই পান্ডাই তাঁর দিকে তাকিয়ে আস্তে আস্তে এগোচ্ছে। একজন নিরাপত্তা রক্ষী একটি লাঠির সাহায্যে মেয়েটিকে পশুর আস্তানা থেকে টেনে তোলার চেষ্টা করছেন কিন্তু বারেবারে ব্যর্থ হচ্ছেন। শয়ে শয়ে দর্শক দাঁড়িয়ে এই ঘটনাটি দেখছেন। তারপরই বাচ্চা মেয়েটির দিকে ধীর পায়ে এগিয়ে যেতে দেখা যায় তৃতীয় একটি পান্ডাকে। তখনই ওই নিরাপত্তাকর্মী লাঠি ছেড়ে নিজে খানিক নেমে পড়েন গর্তে, হাত ধরে বাচ্চাটিকে নিরাপদে টেনে তোলেন উপরে।

ছিল বিড়াল হয়ে গেল বরফ! হিমাঙ্কের নীচে তাপমাত্রায় বিড়াল জমে বরফ, দেখুন ছবি

 

নীচের ভিডিওটি দেখুন:

ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর থেকেই ওই নিরাপত্তাকর্মী লিউ গুইহুয়ার প্রশংসা করেছেন সকলেই। তিনি বাচ্চাটিকে উদ্ধার করে তাঁর বাবা মায়ের কাছে সুস্থ অবস্থায় ফিরিয়ে দেন। শারীরিক অবস্থা পরীক্ষার জন্য বাচ্চাটিকে হাসপাতালেও নিয়ে যান তাঁর অভিভাবকেরা।

Click for more trending news


More News