‘ডিব্বা রোটি’ বানাতে শেখানো বৃদ্ধকে ‘গুরুদক্ষিণা’ দিলেন শেফ বিকাশ খান্না

শেফ বিকাশের এমন আচরণের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেট দুনিয়া। তাঁর দু’টি পোস্টেই শয়ে শয়ে লাইক পড়েছে। পাশাপাশি কমেন্টেও অনেকেই প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন তাঁকে।

‘ডিব্বা রোটি’ বানাতে শেখানো বৃদ্ধকে ‘গুরুদক্ষিণা’ দিলেন শেফ বিকাশ খান্না

অন্ধ্রপ্রদেশের বিখ্যাত পদটি রান্না করার কৌশল বিকাশ শিখেছিলেন ৭২ বছরের এই বৃদ্ধের থেকে।

সেলেব্রিটি শেফ বিকাশ খান্না (Chef Vikas Khanna) ‘গুরুদক্ষিণা' দিলেন। দিলেন সেই মানুষটিকে, যিনি তাঁকে শিখিয়েছিলেন ‘ডিব্বা রোটি' (Dibba Roti) বানাতে। অন্ধ্রপ্রদেশের এই বিখ্যাত পদটি রান্না করার কৌশল বিকাশ শিখেছিলেন ৭২ বছরের ওই বৃদ্ধের থেকে। তবে সামনে থেকে নয়। ইউটিউবে ‘মাস্টার শেফ'-এর চ্যানেলে আপলোড করা এক ভিডিও থেকেই তাঁর শিক্ষালাভ। সেই ভিডিওতেই দেখা মিলেছিল সত্যম নামের ওই বৃদ্ধের। এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের ত্রাণের বিষয়ে দায়িত্ব নিয়েছেন বিকাশ। লকডাউনের ফলে সমস্যায় পড়া মানুষদের রেশন বিলির বন্দোবস্ত করেছেন তিনি।

‘ডিব্বা রোটি' বানাতে শেখানো তাঁর ওই ‘গুরু'-কেও রেশন সরবরাহের ইচ্ছা হয়েছিল বিকাশ। এই সঙ্কটের সময় সেটাই হয়ে উঠবে তাঁর গুরুদক্ষিণা। এমনটা ভেবে তিনি টুইটারে পোস্ট করেছিলেন।

তাঁর টুইটে বিকাশ লেখেন, তিনি ‘ডিব্বা রোটি' বানানোর কৌশল শিখেছিলেন এক বৃদ্ধের থেকে, যাঁর নাম সত্যম। তাঁর খোঁজ দিতে তিনি সকলের কাছে আর্জি জানান তাঁর পোস্টে। একেবারে শেষে তিনি হ্যাশট্যাগ দিয়েছিলেন ‘গুরুদক্ষিণা'।

নেটিজেনদের সৌজন্যে দ্রুতই মিলে গিয়েছে খোঁজ। বিকাশও তাঁর রেশনের বন্দোবস্ত করে দিয়েছেন।

মঙ্গলবার সকালে তিনি টুইট করে তাঁর ফলোয়ারদের জানিয়ে দেন, খোঁজ মিলেছে।

তিনি লেখেন, ‘‘সকলকে ধন্যবাদ। আমরা ৭২ বর্ষীয়‘মাস্টার শেফ' সত্যমকে খুঁজে পেয়েছি। ইনি আমাকে ‘ডিব্বা রোটি' বানানোর কৌশল শিখিয়েছিলেন (ইউটিউবের মাধ্যমে)।''

শেফ বিকাশের এমন আচরণের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেট দুনিয়া। তাঁর দু'টি পোস্টেই শয়ে শয়ে লাইক পড়েছে। পাশাপাশি কমেন্টেও অনেকেই প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন তাঁকে।

গত এপ্রিলে বিকাশ এক প্রকল্পের সূচনা করেন, যার মাধ্যমে দেশজুড়ে রেশন সরবরাহ করা যায়। এখনও পর্যন্ত ১৫টি শহরের মানুষ সাহায্যপ্রাপ্ত হয়েছেন এই প্রকল্পের সৌজন্যে।

Click for more trending news