"বাংলার প্রাপ্য টাকা মিটিয়ে দিন, করোনার সঙ্গে লড়তে অর্থের প্রয়োজন", মোদির কাছে আর্জি মুখ্যমন্ত্রীর

Mamata Banerjee: "মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আলাদা তহবিলের প্রয়োজন রয়েছে। আমি (প্রধানমন্ত্রীকে) এই বিষয়টি ভেবে দেখার জন্য অনুরোধ করবো"

West Bengal: "বকেয়া ৫৩,০০০ কোটি টাকা পাই কেন্দ্রের কাছে", বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

হাইলাইটস

  • প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে রাজ্যের বকেয়া মেটানোর আবেদন জানান মুখ্যমন্ত্রী
  • ৫৩,০০০ কোটি টাকায় বকেয়া মেটাক কেন্দ্র, বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
  • করোনার বিরুদ্ধে লড়তে আলাদা তহবিল প্রয়োজন, একথাও বলেন তিনি
কলকাতা:

পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) করোনা পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হচ্ছে। এই মহামারীর (Coronvirus) বিরুদ্ধে জোরদার লড়াই করার জন্যে প্রচুর অর্থের প্রয়োজন। তাই এই সঙ্কটের সময় রাজ্যের সমস্ত আর্থিক পাওনা শোধ করে দিক কেন্দ্রীয় সরকার, প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে এই আর্জিই জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার আইসিএমআরের অত্যাধুনিক করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। ওই অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রীও। সেই সুযোগেই রাজ্যের তরফ থেকে ওই আবেদন জানান তিনি (Mamata Banerjee)। পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র এবং উত্তরপ্রদেশে নতুন কোভিড -১৯ (COVID-19) পরীক্ষাকেন্দ্রের উদ্বোধন করার সময় মোদি বলেন, রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার উভয়ই নির্বাচিত সংস্থা, তাই তাদের একসঙ্গে কাজ করা উচিত। তখনই মমতা একথাও বলেন যে, এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্যে পৃথক তহবিল গঠনের প্রয়োজন রয়েছে।

রাজ্যে বাড়ছে করোনা থেকে সুস্থতার সংখ্যা, গত ২৪ ঘণ্টায় রোগমুক্ত ২,১৬৬ জন

পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরও জানান যে রাজ্যের দুর্যোগ মোকাবিলার ক্ষেত্রে যে ত্রাণ তহবিল থাকে তার সমস্ত অর্থই ঘূর্ণিঝড় আমফানের পরবর্তী পরিস্থিতিতে পুনর্বাসন কাজের জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে, তাই রাজ্যের হাতে আর অতিরিক্ত কোনও টাকা নেই।

প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নালিশ ঠুকলেন মুখ্যমন্ত্রী

Newsbeep

"আমি কেন্দ্রীয় সরকারকে রাজ্যের আর্থিক পাওনাগণ্ডা খুব তাড়াতাড়ি মিটিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করব। আমরা এখনও বকেয়া ৫৩,০০০ কোটি টাকা পাই। আমরা যদি ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি সামলানোর জন্য রাজ্যের দুর্যোগ মোকাবিলা তহবিল থেকে সমস্ত অর্থ ব্যবহার করে ফেলি, তাহলে এই মহামারীর (COVID-19 Pandemic) বিরুদ্ধে আমরা কীভাবে লড়বো?", ওই অনুষ্ঠানেই প্রধানমন্ত্রী মোদি উদ্দেশ্য করে বলেন মুখ্যমন্ত্রী।

গত ২০ মে ঘূর্ণিঝড় আমফান পশ্চিমবঙ্গের উপর ভয়ঙ্করভাবে ধ্বংসলীলা চালায়। তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে যায় রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলা।

"মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আলাদা তহবিলের প্রয়োজন রয়েছে। আমি (প্রধানমন্ত্রীকে) এই বিষয়টি ভেবে দেখার জন্য অনুরোধ করবো", বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।