নীরবকে দেশে ফেরানোর ব্যাপারে লন্ডন কী সিদ্ধান্ত নেয় তা জানার জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছেঃ কেন্দ্র

ব্রিটিশ সংবাদ পত্র দ্য টেলিগ্রাফ জানিয়েছেন পাঞ্জাব ন্যশনাল ব্যাঙ্কের  ১৩ হাজার কোটি  টাকা  বাকি রেখে  দেশ ছাড়া ব্যবসায়ী  নীরব মোদী লন্ডনে আছেন।

নীরবকে দেশে ফেরানোর ব্যাপারে লন্ডন কী সিদ্ধান্ত নেয় তা জানার জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছেঃ কেন্দ্র

সংবাদপত্র জানিয়েছে ৮ মিলিয়ন পাউন্ড মানে ৭৫ কোটি টাকার বাড়িতে  দিন কাটছে নীরবের

হাইলাইটস

  • দ্য টেলিগ্রাফ জানিয়েছেন লন্ডনে বহাল তবিয়তে আছেন নীরব মোদী
  • লন্ডনে ৭৫ কোটি টাকার বাড়িতে দিন কাটছে নীরবের
  • গত বছর জুলাই মাসে নীরবকে দেশে ফেরানোর আবেদন করে ভারত
নিউ দিল্লি:

ব্রিটিশ সংবাদ পত্র দ্য টেলিগ্রাফ জানিয়েছেন পাঞ্জাব ন্যশনাল ব্যাঙ্কের  (Punjab National Bank)১৩ হাজার কোটি  টাকা  বাকি রেখে  দেশ ছাড়া ব্যবসায়ী  নীরব মোদী (Nirav Modi) লন্ডনে আছেন। দামি কোম্পানির জামা গায়ে চাপিয়ে  ঘুরে বেড়াচ্ছেন।  হীরের ব্যবসাতেও আবার হাত পাকাচ্ছেন। সংবাদপত্র জানিয়েছে ৮ মিলিয়ন পাউন্ড মানে ৭৫ কোটি টাকার বাড়িতে  দিন কাটছে নীরবের। এই খবর প্রকাশ্যে  আসার পর খুব স্বাভাবিক ভাবেই  প্রতিক্রিয়া দিয়েছে বিভিন্ন মহল। বিরোধী দল গুলি মোদী সরকারকে   নতুন করে আক্রমণ করার সুযোগ পেয়েছে। আর কেন্দ্রের তরফে বলা হল তারা  নীরবকে দেশে  ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে লন্ডন কী করে  তা জানাত জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে।   

আরও পড়ুনঃ লন্ডনে আছেন, ‘নীরবে' হিরের ব্যবসা শুরু করেছেন মোদী

 

গত বছর জুলাই মাসে নীরবকে দেশে  ফেরানোর জন্য ইংল্যান্ডের কাছে আবেদন করে ভারত।  কিন্তু এখনও ওই ব্যাপারে  কোনও পদক্ষেপ হয়নি। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবিশ কুমার বলেন, আমরা জানতাম যে নীরব মোদী ইংল্যান্ডে আছেন। তাঁকে দেখা গিয়েছে মানে যে তিনি এখনই দেশে ফিরবেন তা নয়।   দ্য টেলিগ্রাফ পত্রিকা জানায় নতুন করে হীরের ব্যবসা  শুরু করেছেন নীরব মোদী। তবে  সাংবাদিকের করা  প্রশ্নের উত্তর দেননি নীরব। ১৩ হাজার কোটি টাকারও বেশি ঋণ নিয়ে  ফেরত না দিয়ে  দেশ ছেড়েছেন মোদী। আর  ব্রিটিশ সংবাদপত্রের  প্রশ্নের উত্তরও  দিলেন না । একটা নয় দুটো নয়  মোট ছ'বার  প্রশ্ন ফিরিয়ে দিয়েছেন তিনি। প্রশ্ন যাই হোক না কেন তাঁর  শুধু একটাই কথা, কোনও মন্তব্য করব না। শুধু যে  দেশ ছেড়েছেন তা  নয়  চেহারাও বদলে গিয়েছে কিছুটা।  আগে তাঁর যত ছবি বা ভিডিও সংবাদ মাধ্যমের হাতে এসেছে  তার প্রায় প্রতিটিতেই দাড়ি গোঁফ পরিস্কার করে কাটা থাকত। এখন সেখানে  গোঁফ রেখেছেন তিনি।