রোগিণীকে ভুল গ্রুপের রক্ত দেওয়ার অভিযোগ উঠল কলকাতার এক হাসপাতালের বিরূদ্ধে

কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে এক 35 বছর বয়সী রোগিণীর দেহে অস্ত্রোপচারের সময় ভুল গ্রুপের রক্ত দেওয়ার অভিযোগ উঠল

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
রোগিণীকে ভুল গ্রুপের রক্ত দেওয়ার অভিযোগ উঠল কলকাতার এক হাসপাতালের বিরূদ্ধে

বৈশাখী সাহার স্বামী বলেন, হাসপাতাল থেকে তাঁর ওপর বিল মিটিয়ে দেওয়ার চাপ আসছে

কলকাতা:  কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে এক 35 বছর বয়সী রোগিণীর দেহে অস্ত্রোপচারের সময় ভুল গ্রুপের রক্ত দেওয়ার অভিযোগ উঠল।

কলকাতার কলম্বিয়া এশিয়া হাসপাতালে ওই রোগিণী বৈশাখী সাহা এখন জীবনমরণ লড়াই চালাচ্ছেন। তাঁর পরিবার থেকে অভিযোগ জানানো হয়েছে যে, ওই হাসপাতালে তাঁর অস্ত্রোপচারের সময় তাঁর শরীরে এ পজিটিভ গ্রুপের রক্তের বদলে এবি পজিটিভ গ্রুপের রক্ত দিয়ে দেওয়া হয়। যার ফলে তাঁর দেহে মাল্টিপল অর্গ্যান ফেলিওর হয়ে গিয়েছে। তাঁর অবস্থা এখন অত্যন্ত সংকটজনক।

তাঁর স্বামী অভিজিৎ সাহা নিউজ এজেন্সি এএনআইকে জানান, “গত 5 জুন আমি আমার স্ত্রীকে কলম্বিয়া এশিয়া হাসপাতালে ভর্তি করি। তাঁর পেটে অসম্ভব ব্যথা শুরু হওয়ার পরেই নিয়ে আসা হয় এই হাসপাতালে। কিন্তু, দুর্ভাগ্যজনকভাবে, অস্ত্রোপচারের সময় তাঁর শরীরে ভুল গ্রুপের রক্ত দিয়ে দেওয়া হয়। তাঁর ফুসফুস এবং কিডনি অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি এখন ভেন্টিলেশনে রয়েছেন”।

অভিজিৎ সাহা আরও অভিযোগ করেন যে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বিল মেটানো না হলে তাঁর স্ত্রী’র চিকিৎসা থামিয়ে দেবে বলে হুমকি দিচ্ছে। “আমি ইতিমধ্যেই 2.5 লক্ষ টাকা দিয়ে দিয়েছি ওঁদের। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এখন আরও বেশি টাকা চাইছে”। বলেন তিনি।

Comments
তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছেও বিচারের আশায় একটি চিঠি দিয়েছেন। ওই চিঠিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরূদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

স্বাস্থ্য দফতরের এক ঊর্ধ্বতন কর্তা ওই রোগিণীর স্বামীর সঙ্গে কথা বলে ঘটনার বিস্তারিত বিবরণটি জেনেছেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন তাঁরা এই ব্যাপারে সরকারিভাবেই একটি বিবৃতি দেবেন। 
 

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................