“নারী নারায়ণী”,দেশের অগ্রগতিতে মহিলাদের যোগদানের পরিপ্রেক্ষিতে বললেন নির্মলা সীতারামন

বাজেট ২০১৯: প্রত্যেক স্বনির্ভর গোষ্ঠীর একজন করে মহিলাকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন দেওয়ার ঘোষণা কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর

“নারী নারায়ণী”,দেশের অগ্রগতিতে মহিলাদের যোগদানের পরিপ্রেক্ষিতে বললেন নির্মলা সীতারামন

“নারীই নারায়ণী”,দেশের অগ্রগতিতে মহিলাদের যোগদানের পরিপ্রেক্ষিতে বললেন অর্থমন্ত্রী

নয়া দিল্লি:

শুক্রবার বাজেট(Budget 2019) পেশের সময় ভারতীয় অর্থনীতিতে নারীর অবদানকে স্বাগত জানিয়ে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামান(Nirmala Sitharaman) গ্রামীণ খাতে তাঁদের ভূমিকাকে(role of women) "মিষ্টি গল্প" বলে অভিহিত করলেন। এরপরেই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করেন এবার থেকে প্রত্যেক স্বনির্ভরগোষ্ঠীর একজন করে মহিলা কেন্দ্রীয় সরকারের মুদ্রা প্রকল্পের অধীনে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত লোন পাবেন।"আমি দেশের প্রত্যেক নারীর মনোযোগ আকর্ষণ করে বলছি,'নারী তু নারায়ণী'(Naari Tu Narayaani) অর্থাৎ ‘নারীই নারায়ণী'। এই সরকার বিশ্বাস করে যে দেশে আরও বেশি নারীদের অংশগ্রহণের সঙ্গে সঙ্গে আমরা অগ্রগতি অর্জন করতে পারি। ভারতের সমৃদ্ধির গল্পে, বিশেষ করে গ্রামীণ অর্থনীতিতে, নারীর ভূমিকা খুব মিষ্টি”, ২০১৯-২০ অর্থবর্ষের কেন্দ্রীয় বাজেট পেশের সময় সংসদে বলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

"এই সরকার(Modi Govt) দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে যে বিশেষত গত দশকে, ভারতের নারীর ভূমিকা একেবারে আলাদা ছিল। সাম্প্রতিক নির্বাচনগুলোতেও পুরুষ ভোটারদের তুলনায় নারী ভোটারদের রেকর্ড টার্ন আউট দেখা গেছে।পাশাপাশি আমাদের দেশের সংসদেও বর্তমানে ৭৮ জন মহিলা সাংসদ রয়েছেন যা একটি রেকর্ড।নারীর নেতৃত্বে উদ্যোগ ও আন্দোলন গড়ে তোলার ক্ষেত্রে নারী-কেন্দ্রিক নীতিনির্ধারনের ক্ষেত্রে এই বিষয়গুলি আমাদেরকে আরও শক্তিশালী করে তোলে”, বলেন অর্থমন্ত্রী।

এই প্রসঙ্গে সংসদে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী রামকৃষ্ণদেব ও স্বামী বিবেকানন্দের একটি চিঠি উদ্ধৃত করে বলেন, নারীর অবস্থার উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত বিশ্বের সামগ্রিক কল্যাণের কোন সুযোগ নেই।

" মুদ্রা প্রকল্প, স্টার্টআপ ভারত এবং স্ব-নির্ভর গোষ্ঠীগুলির সহায়তার বিভিন্ন প্রকল্পগুলির মাধ্যমে নারী উদ্যোক্তাকে উৎসাহিত করছে মোদি সরকার(Modi Govt) । নারী উদ্যোগগুলিকে আরো উৎসাহিত করার জন্য আমি ভারতের সব জেলায় নারী এসএইচজি সুদ সাবভেনশন প্রোগ্রামের সম্প্রসারণের প্রস্তাব করছি”,বলেন তিনি।

"প্রত্যেক যাচাইকৃত এসএইচজি সদস্য, যার একটি জন ধন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট আছে তাঁদের প্রত্যেকের জন্যে ৫০০০ টাকার ওভারড্রাফ্ট অনুমোদিত হবে। প্রতিটি এসএইচজির একজন করে মহিলাকে কেন্দ্রীয় সরকারের মুদ্রা প্রকল্পের অধীনে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণের জন্য যোগ্য মনে করা হবে", বাজেট ঘোষণার সময় জানান অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News