সুশান্তের সঙ্গে থাকতাম ঠিকই কিন্তু ৮ জুন ছেড়ে চলে আসি: রিয়া চক্রবর্তী

Sushant Singh Rajput Death: তাঁকে নাকাল করতেই সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন, আদালতকে একথাও বলেন রিয়া

Rhea Chakraborty: ১৪ জুন নিজের ঘরে সুশান্তকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়, আগে অভিনেতার সঙ্গে থাকতেন রিয়া (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য ক্রমেই ঘনীভূত হচ্ছে
  • অভিনেতার বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সুশান্তের বাবা
  • মামলাটি বিহার থেকে মুম্বইয়ে স্থানান্তরিত করার আবেদন করে আদালতে রিয়া
নয়া দিল্লি:

"সুশান্তের সঙ্গে বছরখানেক একসঙ্গে ছিলাম ঠিকই কিন্তু ৮ জুন ওঁকে ছেড়ে চলে আসি", সুপ্রিম কোর্টকে একথাই বললেন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী (Rhea Chakraborty)। অর্থাৎ বছর চৌত্রিশের ওই অভিনেতাকে (Sushant Singh Rajput) মুম্বাইয়ের বাড়িতে মৃত অবস্থায় পাওয়া যাওয়ার মাত্র ৬ দিন আগে রিয়া সুশান্তকে ছেড়ে চলে যান। সুশান্ত রাজপুতের পরিবার রিয়া চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে জালিয়াতি এবং আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ এনে তাঁর বিরুদ্ধে পাটনায় একটি মামলা দায়ের করেন। পাটনা থেকে ওই মামলা সরিয়ে মুম্বইয়ের কোনও আদালতে পাঠানো হোক এই আবেদন করে এরপর আদালতের দ্বারস্থ হন রিয়াও। সুশান্তের বান্ধবীর সেই আবেদনের অনুলিপি এনডিটিভির হাতে এসে পৌঁছেছে। সেখানে তিনি দাবি করেছেন যে, অভিনেতা সুশান্তের সঙ্গে তিনি এক বছর লিভ ইন সম্পর্কে থাকলেও ৮ জুন সেখান থেকে নিজের বাড়িতে চলে আসেন। রিয়া চক্রবর্তী একথাও উল্লেখ করেছেন যে সুশান্ত বহুদিন ধরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।

১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুতকে নিজের বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় (Sushant Singh Rajput Death) পাওয়ার পর পুলিশ অনুমান করে যে, অভিনেতা আত্মহত্যা করেছিলেন। যদিও পরে এই মৃত্যু নিয়ে নানা রহস্যের গন্ধ পাওয়া যায়। এমনকী এই অভিযোগও ওঠে যে সুশান্ত বলিউডের কুখ্যাত নেপোটিজমের শিকার। মহারাষ্ট্র পুলিশ তদন্তে নেমে এখনও পর্যন্ত রিয়া চক্রবর্তী, পরিচালক-প্রযোজক সঞ্জয় লীলা বনসালি, চলচ্চিত্র নির্মাতা আদিত্য চোপড়া, পরিচালক মুকেশ ছাবড়া, চলচ্চিত্র নির্মাতা শেখর কাপুর এবং চলচ্চিত্র সমালোচক রাজীব মাসান্দ সহ ৪০ জনেরও বেশি মানুষকে ইতিমধ্যেই জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

এর কিছুদিন পরেই সুশান্তের বাবা কে কে সিং পাটনার রাজেন্দ্রনগর থানায় এফআইআর দায়ের করেন রিয়ার বিরুদ্ধে। তিনি অভিযোগ করেনযে, রিয়া তাঁর ছেলে সুশান্তকে আর্থিকভাবে প্রতারণা করেছেন এবং মানসিক নির্যাতন করেছেন। শুধু রিয়াই নন, বিহার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এফআইআর-এ রিয়ার ভাই শৌভিক চক্রবর্তী-সহ পরিবারের মোট ৬ জন সদস্যের নাম রয়েছে। 

যদিও রিয়া চক্রবর্তীর দাবি যে, তাঁকে নাকাল করতেই সুশান্ত সিং রাজপুতের বাবা তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।আবেদনে একথাও বলেন যে, তিনি আশঙ্কা করছেন বিহার পুলিশ এই মামলার তদন্ত করলে বিচারকে প্রভাবিত করা হবে। 

রিয়া বলেন, সুশান্ত রাজপুতের বাবা কে কে রাজপুতের সঙ্গে বিহার পুলিশের আধিকারিকদের যথেষ্ট ভালো সম্পর্ক রয়েছে যার ফলে এই মামলাকে প্রভাবিত করতে পারেন তিনি, ফলে ন্যায়বিচারের স্বার্থে মামলাটি মুম্বইয়ে স্থানান্তিরত করা হোক।