সন্ত উপাধি হারাতে চলেছেন ধর্ষণের দায়ে গ্রেফতার বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দ!

সাধুদের বিষয়ে সর্বোচ্চ সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী Akhil Bhartiya Akhara Parishad বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দকে সন্ত সম্প্রদায় থেকে বহিষ্কারের জন্য প্রস্তুত।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
সন্ত উপাধি হারাতে চলেছেন ধর্ষণের দায়ে গ্রেফতার বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দ!

Chinmayanand Rape Case: শুক্রবারই গ্রেফতার করা হয় প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দকে।


প্রয়াগরাজ: 

নাহ, আর বোধহয় সাধুপুরুষ থাকতে পারবেন না স্বামী চিন্ময়ানন্দ। প্রাক্তন ওই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা (Chinmayanand), যিনি শুক্রবার এক আইনের ছাত্রীকে ভয় দেখানো ও যৌন হয়রানির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন, এবার বোধহয় হারাতে চলেছেন তাঁর সন্ত তকমাটিও। সাধুদের বিষয়ে সর্বোচ্চ সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী অখিল ভারতীয় আখাড়া পরিষদ (Akhil Bhartiya Akhara Parishad) বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দকে সন্ত সম্প্রদায় থেকে বহিষ্কারের জন্য প্রস্তুত। শনিবার ওই কাউন্সিলের একটি সভার পর সংস্থার সভাপতি মহন্ত নরেন্দ্র গিরি জানিয়েছেন যে চিন্ময়ানন্দকে সাধু সম্প্রদায় থেকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। "অখিল ভারতীয় আখাড়া পরিষদের একটি আনুষ্ঠানিক বৈঠক আগামী ১০ অক্টোবর হরিদ্বারে অনুষ্ঠিত হবে এবং এই সিদ্ধান্তটিতে ওই সাধারণ সংস্থার অনুমোদনের পরেই শীলমোহর দেওয়া হবে" বলেন তিনি।

মহন্ত নরেন্দ্র গিরি আরও বলেন, "চিন্ময়ানন্দ যে ধরণের অপকর্ম করেছেন তাতে সাধু সম্প্রদায়ের পক্ষে এর চেয়ে লজ্জার আর কিছু হতে পারে না। যতদিন না তিনি আদালতের মামলা থেকে রেহাই পাচ্ছেন ততদিন পর্যন্ত তাঁকে বহিষ্কার করা হবে।"

চিন্ময়ানন্দ বর্তমানে মহা নির্বানী আখড়ার মহামন্ডলেশ্বর।

৭৩ বছর বয়সী ওই বিজেপি নেতা রাজনীতি থেকেও নিজের অবস্থান হারিয়েছেন এবং অদূর ভবিষ্যতে সম্ভবত তিনি আর তাঁর নামের আগে 'সন্ত' বা 'স্বামী'  উপাধি ব্যবহার করতে পারবেন না।

গ্রেফতার বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দ, তবে ধর্ষণের দায়ে নয়! পালটা অভিযোগ নিগৃহীতার বিরুদ্ধে

চিন্ময়ানন্দ অযোধ্যা আন্দোলনের মূল উদ্যোক্তা ছিলেন।ওই বিজেপি নেতা মহন্ত অবৈদ্যনাথকে (উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের শিক্ষক) নিয়ে 'রাম মন্দির মুক্তি যজ্ঞ সমিতি' গঠন করেছিলেন। রামবিলাস বেদন্তী ও রামচন্দ্র পরমহংসের মতো অন্যান্য সাধুগণও পরবর্তীকালে এই আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন। ১৯৮৬ সালের ১৯ জানুয়ারি তিনি রাম জন্মভূমি আন্দোলন সংগ্রাম সমিতির আহ্বায়ক হন।

আইনের এক ছাত্রী চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করার প্রায় একমাস পরে ওই প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে শাহজাহানপুরে তাঁর আশ্রম থেকে গ্রেফতার করা হয় এবং ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠানো হয়।

ধর্ষণে অভিযুক্ত বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে প্রমাণ পেন ড্রাইভে, দাবি তরুণীর

এর আগে ২০১১ সালে চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে তাঁরই আশ্রমের এক আশ্রমিক ধর্ষণের অভিযোগ করেন,  সেইসময় আশ্রমিক ওই মহিলা অভিযোগ করেন যে বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে তাঁর উপর যৌন নির্যাতন করেন চিন্ময়ানন্দ।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................