বনগাঁয় আস্থা ভোট ঘিরে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ, পুলিশের সামনেই পড়ল বোমা

২২ আসনের বনগাঁ পুরসভার দখল নিয়ে সংঘর্ষের সূত্রপাত। বনগাঁ পুরসভায় ১৯টি আসন ছিল তৃণমূলের(TMC, মাসখানেক আগে বিজপিতে(BJP) যোগ দেন ১২জন কাউন্সিলর।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

জয়ের দাবি করে তৃণমূল কংগ্রেস, বিজেপি, দুপক্ষই।


বনগাঁ: 

আস্থা ভোটকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র হয়ে উঠল উত্তর ২৪ পরগনার বনগাঁ। ১২জন তৃণমূল কাউন্সিলর বিজেপিতে (BJP) যোগদানের ফলে আস্থা ভোট হয় বনগাঁ পুরসভায়(Bongaon Municipality)। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে একাধিকবার লাঠিচার্জ করে পুলিশ। তবে পরিস্থিতি এখনও অশান্ত বনগাঁয়। পুরসভার সামনে জমায়েত বহু মানুষের। ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয় বিশাল পুলিশবাহিনী। একে অপরের হাত ধরে মানবশৃঙ্খল রচনা তৈরি করা হয়। বিজেপি (BJP) ও তৃণমূলের (TMC সংঘর্ষ বলে দাবি করেছেন এলাকার বাসিন্দারা। ২২ আসনের বনগাঁ পুরসভার(Bongaon Municipality) দখল নিয়ে সংঘর্ষের সূত্রপাত। বনগাঁ পুরসভায় ১৯টি আসন ছিল তৃণমূলের, মাসখানেক আগে বিজপিতে যোগ দেন ১২জন কাউন্সিলর।

ভাটপাড়া হাসপাতালের বিল্ডিংয়ে ঢুকে ভাঙচুর, লন্ডভন্ড সিভিক এজেন্সি অফিসও

মঙ্গলবার আস্থা ভোট ছিল বনগাঁ পুরসভায়(Bongaon Municipality)। এক তৃণমূল(TMC কাউন্সিলর অভিযোগ দায়ের করেন, তাঁকে অপহরণ করার চেষ্টা করেছিল বিজেপি। দুই বিজেপি(BJP) কাউন্সিলরের দাবি করেন, তাঁরা এই মামলায় আগাম জামিন পেয়েছেন। এদিন আস্থা ভোটের জন্য পুরসভায় গেলে, তাঁদের থেকে জামিনের নথি দেখতে চায় পুলিশ। যদিও কাউন্সিলরদের কাছে জামিনের নথির কোনও হার্ড কপি ছিল না। মোবাইল ফোনে জামিনের নথির  ছবি দেখাতে চাইলে, তা মানতে চান নি পুলিশ কর্মীরা।

সংসদে বারবার বাংলায় রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে প্রশ্নে আপত্তি জানাল তৃণমূল

এরপরেই প্রথমে বচসা, এবং তারপর বিজেপি সমর্থকদের সঙ্গে পুলিশের ধস্তাধস্তি শুরু হয়। দুই বিজেপি (BJP) কাউন্সিলরকে ভিতরে ঢুকতে দেওয়ার দাবি জানান গেরুয়া শিবিরের সমর্থকরা। পরিস্থিতি ক্রমশই রণক্ষেত্রের চেহারা নেয়। সেখানে তৃণমূল কংগ্রেস(TMC অংশ নেয় বলে খবর। আস্থা ভোটে, তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপি, দু পক্ষই নিজেদের জয়ী বলে ঘোষণা করতে থাকে।

ভাটপাড়ায় নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই কাকিনাড়ায় বোমাবাজি, এলাকায় উত্তেজনা

বিজেপির দাবি, ইচ্ছাকরেই তাদের দলের দুই কাউন্সিলরকে ভিতরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। তবে, “তাঁদের বাকি ১১ জন” কাউন্সিলর ভিতরে ঢুকেছেন এবং এক্সিকিউটিভ অফিসারের সামনেই, আস্থা ভোটে, ভোট দিয়েছেন। তৃণমূল কংগ্রেস(TMC, নিজেদের জয়ী বলে দাবি করলেও, ভোটের সময়, তাদের দলের কোনও কাউন্সিলর উপস্থিত ছিলেন না বলে অভিযোগ বিজেপির(BJP)। একই দাবি করেছে তৃণমূল কংগ্রেসও।

সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে এ রাজ্যে ভাল ফল করেছে বিজেপি(BJP)। গতবারের ২টি আসন থেকে বাড়িয়ে এবার তারা পেয়েছে ১৮টি আসন। অন্যদিকে, ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে প্রাপ্ত ২২ আসন থেকে এবার কমে তৃণমূলের(TMC আসনসংখ্যা হয়েছে ৩৪।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................