পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের, দাবি বিজেপির

বিজেপির তোলা অভিযোগ ওড়াল পুলিশ ও শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
পুলিশের গুলিতেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় ২ জনের,  দাবি বিজেপির

বৃহস্পতিবার দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, বলে দাবি করে গেরুয়া প্রতিনিধি দলটি।


কলকাতা: 

শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ার (Bhatpara) পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেখানে যায় বিজেপির (BJP) ৩ সদস্যের প্রতিনিধি দল। বৃহস্পতিবার দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন পুলিশের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ২ জনের, বলে দাবি করে গেরুয়া প্রতিনিধি দলটি। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ আলহুওয়ালিয়ার নেতৃত্বে ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন আরও ২ সদস্য, সাংসদ সত্যপাল সিং, বি ডি রাম সহ বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।“আমরা মৃত ও আহতদের পরিবার এবং স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি। আমরা পুলিশের ব্যবহৃত স্বয়ংক্রিয় রাইফেলের বুলেটের অংশবিশেষও পেয়েছি। এই ঘটনা প্রমাণ করছে যে বৃহস্পতিবার বিজেপি কর্মীদের মারতেই গুলি চালিয়েছিল পুলিশ”,অভিযোগ আলুয়ালিয়ার। বৃহস্পতিবার শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC) ও বিজেপির (BJP) মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালীন মৃত্যু হয় ২ জনের, আহত হন আরও ১১ জন।

ফের অশান্ত ভাটপাড়া! বিজেপির প্রতিনিধি দল পরিস্থিতি দেখতে যাওয়ার পরেই সংঘর্ষ

“পুলিশ বলছে তাঁরা শূন্যে গুলি চালিয়েছিল। যদি তাই হয়, তাহলে সেই গুলি কি করে মানুষের গায়ে লাগল ? ”, প্রশ্ন আলহুওয়ালিয়ার। “আমরা অমিত শাহকে (Amit Shah) গোটা পরিস্থিতির রিপোর্ট দেব, তিনি ভাটপাড়ার (Bhatpara)  বর্তমান হিংসাত্মক পরিস্থিতি নিয়ে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন”, বলেন ওই বিজেপি সাংসদ ।

যদিও বিজেপির (BJP) এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছে পুলিশ ও শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। ভাটপাড়ায় (Bhatpara) উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে দিতেই সেখানে গেছিল বিজেপির প্রতিনিধি দল বলে দাবি করেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।“ওই পরিদর্শনের কি উদ্দেশ্য?”, প্রশ্ন তাঁর। যেখানে বর্তমানে ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে, সেখানে কীভাবে পরিদর্শনে গেল বিজেপি? ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করার অভিযোগে তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা উচিত পুলিশের”, বলেন পার্থ। যদিও একজন আধিকারিক দাবি করেছেন, ভাটপাড়ায় যাওয়ার আগে নির্দিষ্ট অনুমতি নিয়েছিল বিজেপি।

উত্তপ্ত ভাটপাড়ায় যাচ্ছে বিজেপির প্রতিনিধি দল

এর আগে সিপিআই(এম) ও কংগ্রেসের একটি যৌথ প্রতিনিধি দল ভাটপাড়া, জগদ্দল ও বারুইপাড়ায় (Bhatpara)  গিয়ে এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে।বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী ও কংগ্রেস নেতা আবদুল মান্নান ছিলেন ঐ যৌথ প্রতিনিধি দলে। গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে তাঁরা সিবিআই তদন্তের দাবি তোলেন। বিজেপির তরফ থেকেও সিবিআই তদন্তের দাবি করা হয়েছে। এর আগে শুক্রবার ভাটপাড়ায় ওই ২জনের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে রাজ্য জুড়ে প্রতিবাদ আন্দোলনেও সরব হন তাঁরা (BJP)।

ভাটপাড়ায় হিংসা, অশান্তির বলি ২, অমিত শাহের দ্বারস্থ হচ্ছে বিজেপি: ১০টি তথ্য

একসময় তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) গড় বলে পরিচিত ভাটপাড়া (Bhatpara) নির্বাচন পরবর্তী হিংসায় বারবার উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। এই হানাহানি তখন থেকে শুরু হয় যখন তৃণমূল কংগ্রেস থেকে দলবদল করে বিজেপিতে (BJP) যোগদান করেন অর্জুন সিং ও পরবর্তীতে লোকসভা নির্বাচনে ব্যারাকপুর কেন্দ্র থেকে তিনি জয়লাভ করেন। ভাটপাড়া এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রেরই অন্তর্গত।

পাশাপাশি লোকসভা নির্বাচন চলাকালীনই ভাটপাড়া বিধানসভার উপনির্বাচন হয়। সেই উপনির্বাচনে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রকে হারিয়ে জয়লাভ করেন অর্জুন পুত্র পবন সিংও।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................