যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্যকে দেখতে হাসপাতালে গেলেন রাজ্যপাল

বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে (Suranjan Das) দেখতে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্যকে দেখতে হাসপাতালে গেলেন রাজ্যপাল

বৃহস্পতিবার সন্ধেয় হাসপাতালে ভর্তি হন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্য সুরঞ্জন দাস। (ফাইল)


রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর (Jagdeep Dhankar) শনিবার বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ উপাচার্য সুরঞ্জন দাসকে (Suranjan Das) দেখতে গেলেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র (B‌abul Supriyo) নিগ্রহের ঘটনায় অশান্ত হয়ে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। এরপরই হাসপাতালে ভর্তি হতে হয় সহ উপাচার্যকে। আগেই রাজ ভবন সূত্র থেকে জানা গিয়েছিল, শনিবার সকালে সুরঞ্জন দাসকে দেখতে যাবেন রাজ্যপাল। বৃহস্পতিবার সন্ধেয় সুরঞ্জন হাসপাতালে ভর্তি হন। তিনি ছাড়াও সহকারী সহ উপাচার্য পিকে ঘোষও ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হাসপাতল থেকে প্রকাশিত মেডিক্যাল বুলেটিন থেকে জানা যাচ্ছে, দু'জনেই ‘‘মাথা ঘোরা, মাথা যন্ত্রণা, উদ্বেগ, বমি বমি ভাব'' ইত্যাদি শারীরিক সমস্যায় ভুগছেন।

তাঁরা দু'জনই অসুস্থ হয়ে পড়েন কেন্দ্রীয় বাবুল সুপ্রিয়র বিশ্ববিদ্যালয়ে আসাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর অশান্ত হয়ে উঠলে। বৃহস্পতিবার বিজেপির ছাত্র শাখা এবিভিপি বা অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের একটি সেমিনারে যোগ দিতে এসেছিলেন বাবুল। তাঁকে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়।

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ অপর্ণা সেন সহ অন্য বিশিষ্টদের

প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর রাজ্যপাল এসে সন্ধ্যাবেলায় বাবুল সুপ্রিয়কে উদ্ধার করে নিয়ে যান। প্রসঙ্গত, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য। ওইদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ঘেরাও থাকা অবস্থায় সহ উপাচার্যের বিশ্ববিদ্যালয় ছেড়ে চলে যাওয়ার ঘট‌নায় অসন্তুষ্ট হন তিনি।

যাদবপুরের আক্রমণকারীদের ‘‘কাপুরুষ'' বলে টুইট করলেন বাবুল সুপ্রিয়

সংবাদমাধ্যমের একাংশের সূত্রে জানা যাচ্ছে, বাবুল সুপ্রিয় সুরঞ্জন দাসের সঙ্গে কটূ স্বরে কথা বলেন। জানতে চান কেন, তিনি তাঁকে আনতে চত্বরে উপস্থিত ছিলেন না কিংবা কেন প্রতিবাদীদের সামলাতে পুলিশকে খবর দেননি।

শুক্রবার বাবুল এই ঘটনার নিন্দা করে টুইট করেন। সেখানে তিনি লেখেন, যারা তাঁকে হেনস্থা করেছে তাদের মানসিক পুনর্বাসন দেওয়া হবে। তিনি তাঁর টুইটে জানান, ‘‘চিন্তা নেই, তোমাদের সঙ্গে সেই ব্যবহার করা হবে না যেটা তোমরা আমার সঙ্গে করেছ।'' অভিযোগ, ৪৮ বছরের বাবুল সুপ্রিয় বৃহস্পতিবার যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে গেলে তাঁকে নিগ্রহ করা হয়। তাঁর শার্ট ছিঁড়ে দেওয়ার পাশাপাশি চুল ধরেও টানা হয়।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................