রাজ্যপালের নিরাপত্তার দায়িত্ব সিআরপিএফকে দেওয়া প্রসঙ্গে কেন্দ্রকে আর্জি রাজ্যের

গত ৩০ জুলাই রাজ্যের রাজ্যপাল হিসেবে শপথ নেন জগদীপ ধনখড়। গত ১৫ অক্টোবর সিআরপিএফকে ধনখড়ের নিরাপত্তার দায়িত্ব দেওয়া হয়।

রাজ্যপালের নিরাপত্তার দায়িত্ব সিআরপিএফকে দেওয়া প্রসঙ্গে কেন্দ্রকে আর্জি রাজ্যের

গত ৩০ জুলাই রাজ্যের রাজ্যপাল হিসেবে শপথ নেন জগদীপ ধনখড়।

রাজ্যপালের (Governor Jagdeep Dhankhar) নিরাপত্তার জন্য সিআরপিএফকে (CRPF) দায়িত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক (Union Home Ministry)।  রাজ্য সরকার মন্ত্রককে এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আর্জি জানিয়েছে বলে এক বর্ষীয়ান আধিকারিক বুধবার জানিয়েছেন। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়কে জেড প্লাস নিরাপত্তা দেওয়ার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে ২১ অক্টোবর একটি চিঠি লিখে রাজ্য সরকারের তরফে সেই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আর্জি জানানো হয়। সেই সঙ্গে এও জানতে চাওয়া হয়, সিআরপিএফকে নিযুক্ত করার আগে একবারও কেন সে ব্যাপারে রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা করা হয়নি। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক রাজ্য সরকারের এক বর্ষীয়ান আধিকারিক একথা জানান সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে।

তিনি বলেন, ‘‘রাজ্য সরকারের দায়িত্ব রাজ্যপালের সুরক্ষার দায়িত্ব নেওয়া, যেহেতু তিনি রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান‌। রাজ্য সরকারের তরফে রাজ্যপালের অন্তর্ভুক্তির পর প্রথম দিন থেকেই তাঁকে জেড ক্যাটিগরির সুরক্ষা দেওয়া হয়। তাহলে কেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক হঠাৎ সিআরপিএফকে নিয়োগ করল আমাদের সঙ্গে আলোচনা না করে?''

‘‘উদ্বেগে থাকব দিল্লির কেউ আমার উপরে রেগে না যায়'': জম্মু ও কাশ্মীরের রাজ্যপাল

তবে রাজ্যপালের দফতরের তরফে জানানো হয়, সেপ্টেম্বরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে ছাত্র বিক্ষোভের সম্মুখীন হলে যখন তাঁকে ‘উদ্ধার' করতে যান রাজ্যপাল। এরপর রাজ্য সরকারের কাছে আর্জি জানানো হয় রাজ্যপালের নিরাপত্তা জেড থেকে জেড প্লাস করা হোক।

প্রসঙ্গত, এবিভিপির এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে যান বাবুল সুপ্রিয়। তখনই তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখায় পড়ুয়ারা। তাঁকে কালো পতাকা দেখান‌ো হয়।

"রাজ্যে NRC নয়, তাই বাংলায় কোনও আটক শিবিরেরও প্রয়োজন নেই": মুখ্যমন্ত্রী

সরকারি আধিকারিক বলেন, রাজ্য সরকারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ‘‘অব্যর্থ'' এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে সেই কারণেই এই বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করতে বলা হয়।

গত ৩০ জুলাই রাজ্যের রাজ্যপাল হিসেবে শপথ নেন জগদীপ ধনখড়। গত ১৫ অক্টোবর সিআরপিএফকে ধনখড়ের নিরাপত্তার দায়িত্ব দেওয়া হয়।

এর সপ্তাহখানেক পরে রাজ্যপালের নিরাপত্তার দায়িত্ব গ্রহণ করে সিআরপিএফ। রাজ্য পুলিশ ও কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনীর মধ্যে এই নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থা বিষয়ে আলোচনা হয়।

রাজ্যে এযাবৎ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর ভাইপো সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেড প্লাস সুরক্ষা দেওয়া হয়।

সারেগামাপার মঞ্চ মাতানো স্নিগ্ধজিৎ রবীন্দ্র সরোবরে লেকের ধারে এনডিটিভি বাংলার সঙ্গে আড্ডা দিলেন। আর অবশ্যই শোনালেন গান। দেখুন ভিডিও



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
More News