মোটা হওয়া নিয়ে সচেতন নয় পড়ুয়ারা! রাজ্যের স্কুলে পাঠ্যক্রমে যোগ হচ্ছে স্বাস্থ্য সচেতনতা

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩,000 টাকা, উচ্চ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৭,000 টাকা এবং মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্কুলে ১0,000 টাকা করে দেওয়া হবে এই উদ্দেশ্যে

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
মোটা হওয়া নিয়ে সচেতন নয় পড়ুয়ারা! রাজ্যের স্কুলে পাঠ্যক্রমে যোগ হচ্ছে স্বাস্থ্য সচেতনতা

যন্ত্রগুলি কীভাবে চালাতে হবে তা প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে শিক্ষকদের


কলকাতা: 

পড়ুয়াদের মধ্যে মোটা হয়ে যাওয়া এবং স্থূলতা প্রতিরোধ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে পাঠ্যক্রমে বিশেষ পাঠ অন্তর্ভূক্ত করতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ স্কুল শিক্ষা বিভাগ। স্বাস্থ্যকর জীবনযাপন বজায় রাখার গুরুত্ব বিষয়ে স্কুল জীবন থেকেই সচেতন হওয়া এবং স্বাস্থ্য সমস্যা মোকাবিলার জন্য বিশেষ পাঠ্যক্রম আনতে তৎপর হয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতর।

এক বিভাগীয় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, অবশ্যই এই পাঠক্রম প্রাথমিক স্তর থেকেই প্রয়োগ করা হবে। বিষয়টির জন্য ইতিমধ্যেই তহবিল বিতরণও করা হয়েছে। পাঠ্যক্রমে তাত্ত্বিক জ্ঞান প্রদান ছাড়াও জীবনে তার প্রয়োগ ও বাস্তব ফলাফলের দিকটিও তুলে ধরা হবে।

স্থূলতা নিয়ন্ত্রণে শারীরিক কার্যকলাপের প্রয়োজনীয়তা, নিয়মিত শরীরের পরিমাপ এবং সুস্থ খাওয়াদাওয়ার বিষয়ে এই পাঠ্যক্রমে জোর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা দফতর। শিক্ষকদের বারেবারে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে স্থূলতা প্রতিরোধ যোগব্যায়াম অনুশীলন অভ্যাস করার কথা বলে যেতে হবে তাঁদের। শিক্ষকরাই পড়ুয়াদের শেখাবেন।

শিক্ষার পরিবেশ যাতে নষ্ট না হয়, তার দিকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়কে নজর রাখতে বললেন রাজ্যপাল

ওই কর্তা বলেন, "নিয়মিত কিছু জিনিসের পরিমাপ করা উচিৎ আমাদের। যেমন রক্ত চাপ, রক্ত ​​শর্করা এবং শরীরের ওজন। প্রথম দুটি বিষয়ে স্থূলতার সঙ্গে অঙ্গাঙ্গীভাবে সম্পর্কিত। এই সব বিষয়ই পাঠ্যক্রমে ব্যাখ্যা করা হবে। পড়ুয়াদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে হবে, যা আখেরে তাঁদের বাবা-মা'দেরও বোঝাতে সক্ষম হবে যে স্থূলতা আসলে কী?”

রক্তচাপ পরিমাপ, রক্ত ​​শর্করা এবং শরীরের ওজন নিয়মিত স্কুলের মধ্যেই পরীক্ষা করা উচিৎ। তিনি আরও বলেন, "স্কুলে এই বিষয়গুলি পরিমাপের জন্য যন্ত্র প্রদত্ত তহবিল থেকেই কিনে নেবে স্কুলগুলি। বিভাগ থেকে ইতিমধ্যেই স্ফিগমোম্যামোমিটার (sphygmomanometer) এবং স্টেথোস্কোপ কেনা হয়েছে রক্তচাপ পরিমাপের জন্য।ওজন মাপার মেশিন, স্কিনফোল্ড ক্যালিপার, রক্তশর্করা মাপতে গ্লুকোমিটারও কেনে হয়েছে।”

বড়দিনে রোদ্দুরের দেশে চলে গেলেন অমলকান্তির স্রষ্টা নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী

বিভাগ জানিয়েছে, এই যন্ত্রগুলি কীভাবে চালাতে হবে তা প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে শিক্ষকদের। রক্তচাপ, রক্ত ​​শর্করা এবং কিভাবে স্থূলতা নিয়ন্ত্রণ করা যায় বা খাদ্য অভ্যাসে লাগাম এবং খাবারের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে কীভাবে প্রতিরোধ করা যায় স্থূলতা, ব্যায়ামের ফলে কীভাবে নানা শারীরিক সমস্যা তুড়ি মেরে সমিয়ে ফেলা যায় তাও প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে শিক্ষকদের। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩,000 টাকা, উচ্চ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৭,000 টাকা এবং মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্কুলে ১0,000 টাকা করে দেওয়া হবে এই উদ্দেশ্যে।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................