শৈশবে নেওয়া টিবি-প্রতিরোধী বিসিজি টীকা! সংক্রমিতদের বাঁচিয়ে দিচ্ছে ভারতে

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু, ১৯৬২ সালে এই বিসিগি টীকাকে স্বীকৃতি দিয়েছিল

শৈশবে নেওয়া টিবি-প্রতিরোধী বিসিজি টীকা! সংক্রমিতদের বাঁচিয়ে দিচ্ছে ভারতে

প্রতীকী ছবি।

হাইলাইটস

  • এই বিসিজি টীকা বাড়িয়েছে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা
  • বিসিজি টীকা দেওয়া এমন দেশে সংক্রমণ কম
  • অন্য দেশে বাড়িয়েছে সংক্রমণ মাত্রা
নয়া দিল্লি:

শৈশবে নেওয়া টিবির টীকা বিসিজি (BCG Vaccine) করোনা সংক্রমণ (Corona) প্রতিরোধে চিকিৎসকদের আশার আলো দেখাচ্ছে। এই বিসিজি বা Bacille Calmette-Guerin-দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা (Immunity Power) অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে করোনার মতো ভাইরাসের প্রকোপ কমাতে এই টীকা চিকিৎসা বিজ্ঞানকে দিশা দেখিয়েছে। এমনটাই দাবি করা হয়েছে সাম্প্রতিক এক রিপোর্টে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, সংক্রমিতদের বিসিজি টীকা দেওয়া হলে, তাঁদের মধ্যে মৃত্যুর হার অনেকটাই কম। পর্যবেক্ষণ কিংবা কোয়ারান্টাইনে রেখে তাঁদের সুস্থ করে তোলা যাচ্ছে। এই দাবি করেছেন গবেষকরা। নবজাতকদের শরীরে এই বিসিজি টীকা দেওয়া হয় চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনেই। টিবি বা যক্ষ্মা রোগের প্রতিষেধক (Anti-Tuberculosis) হিসেবে কাজ করে এই টীকা। ১৯২০ সালে, বিশ্বব্যাপী টিবি যখন মহামারী, তখন এই টীকা দেওয়া শুরু হয়েছিল। যেহেতু সে সময় ভারতের মতো তৃতীয় বিশ্বের দেশে টিবি মহামারীর আকার নিয়েছিল, তখন ১৯৪৮ সালে এদেশে এই টীকা দেওয়া শুরু হয়। 

পরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু, ১৯৬২ সালে এই বিসিজি টীকাকে স্বীকৃতি দিয়েছিল। মার্কিন মুলুকের এমডি অ্যান্ডারসন ক্যান্সার সেন্টারের অধ্যাপক আশিস কামাট বলেছেন, "এমন অনেক প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে, যেখানে বিসিজি ব্যবহার হয়েছে এমন নবজাতকের পাশাপাশি সংক্রমিত অনেককে বাঁচিয়ে তোলা সম্ভব হচ্ছে।"

রাজ্য / কেন্দ্রসাশিত এলাকাসংক্রমিতসুস্থ /সুস্থ হচ্ছে মৃত্যু 
আন্দামান ও নিকোবর১০
অন্ধ্রপ্রদেশ৩০৫
অরুণাচল প্রদেশ 
অসম২৭
বিহার৩৮
চণ্ডীগড় ১৮
ছত্তিসগড় ১০
দিল্লি ৫৭৬২১
গোয়া
গুজরাত১৬৫২৫১৩
হরিয়ানা১৪৭২৮
হিমাচল প্রদেশ ১৮
জম্মু-কাশ্মীর ১১৬
ঝাড়খণ্ড 
কর্নাটক ১৭৫২৫
কেরল ৩৩৬৭০
লাদাখ ১৪১০০ 
মধ্যপ্রদেশ ২২৯১৩ 
মহারাষ্ট্র১০১৮৭৯৬৪
মণিপুর
মিজোরাম  
ওড়িশা ৪২
পুদুচেরি 
পাঞ্জাব ৯১
রাজস্থান ৩২৮২১
তামিলনাড়ু৬৯০১৯
তেলেঙ্গানা   ৩৬৪৩৫
ত্রিপুরা 
উত্তরাখণ্ড ৩১
উত্তরপ্রদেশ ৩২৬২১
পশ্চিমবঙ্গ ৯৯১৩
দেশে মোট সংক্রমিত ৫,১৯৪ #৪০২১৪৯
* কেন্দ্রের স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী এই তালিকা প্রকাশিত। ৮ এপ্রিল, ২০২০, সকাল ৯টা পর্যন্ত হিসেবে এই তালিকা। এই তালিকার আপডেট পেতে https://www.mohfw.gov.in/ ক্লিক করুন...
# রাজ্যের পাঠানো তালিকা অনুযায়ী এই চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ 

জানা গিয়েছে, চিকিৎসা বিজ্ঞান প্রমাণ করেছে বিসিজি টীকা দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকটা বাড়িয়ে দিয়েছে। নানাকারণে অসুস্থ হয়ে পড়ার প্রবণতা কমেছে। গবেষক কামাট এনডিটিভি-কে বলেছেন, "যে দেশ বিসিজি টীকার প্রটোকল মেনেছে, তাদের সংক্রমণের মাত্রা কম। যে দেশ মানেনি, তাদের সংক্রমণের মাত্রা ১০ গুণ বেশি।" এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, ইউএস, ইতালি, স্পেন আর ইরানের মতো দেশ, করোনার কারণে বেশি প্রভাবিত। শেষ পাওয়া খবর মার্কিন মুলুকে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ৩ লক্ষ পৌঁছেছে। 

ভিডিও: দেখুন করোনার বিরুদ্ধে নেওয়া সরকারের কৌশল