নমাজের জন্য মসজিদের প্রয়োজন? আজ রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট

Ayodhya: এক যুগান্তকারী রায় আজ বিকেলে দিতে চলেছে দেশের শীর্ষ আদালত। যার ফলে সরাসরি প্রভাব পড়তে পারে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ করা হবে কি না, সেই ইস্যুতেও।

নমাজের জন্য মসজিদের প্রয়োজন? আজ রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট

Ayodhya Verdict: 1994 সালে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল, নমাজ পড়ার সঙ্গে মসজিদের কোনও সম্পর্ক নেই।

হাইলাইটস

  • মসজিদে নমাজ পড়া যাবে কি না, তা নিয়ে রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট
  • এই রায়টি সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের অন্যতম শেষ রায়
  • 1994 সালে সুপ্রিম কোর্ট জানায় নমাজ পড়ার সঙ্গে মসজিদের কোনও সম্পর্ক নেই।
নিউ দিল্লি:

এক যুগান্তকারী রায় আজ বিকেলে দিতে চলেছে দেশের শীর্ষ আদালত। যার ফলে সরাসরি প্রভাব পড়তে পারে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ (Ayodhya case)করা হবে কি না, সেই ইস্যুতেও। এই রায়টি সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের সংশ্লিষ্ট পদ থেকে অবসর নেওয়ার আগে অন্যতম শেষ রায়দান হতে চলেছে। সুপ্রিম কোর্ট আজ জানাবে নমাজ পড়ার জন্য (Namaz at Mosque is integral to Islam) মসজিদের আদৌ কোনও প্রয়োজন আছে কি না।এর আগে, 1994 সালে দেশের শীর্ষ আদালত জানিয়ে দিয়েছিল, নমাজ পড়ার সঙ্গে মসজিদের কোনও সম্পর্ক নেই। তা যে কোনও স্থানে বসেই পড়া যেতে পারে। এমনকি, প্রয়োজন পড়লে অধিগ্রহণ করা যেতে পারে মসজিদের জমিও।

ওই রায়ের ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই অখুশি হয়েছিলেন মুসলিম সম্প্রদায়ের একটি বৃহৎ অংশ। তাঁরা বলেছিলেন, সুপ্রিম কোর্টের উচিত এই রায়টিকে পুনর্বিবেচনা করে দেখা। এতদিনের পুরনো এই রায়টি ফের পুনর্বিবেচনা করে দেখা হবে কি না, সেই বিষয়েই সিদ্ধান্ত নেবে সুপ্রিম কোর্ট।

2010 সালে এলাহাবাদ আদালতের রায়ে বলা হয়েছিল, বাবরি মসজিদের বিতর্কিত জমিটিকে তিনভাগে ভাগ করা হবে। যার একটি অংশ পাবে মুসলমানরা। আর, একটি বড় অংশ পাবে হিন্দুরা।

More News