৬ ডিসেম্বর শুরু হবে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ; শুনানি শেষের আগেই ঘোষণা বিজেপি সাংসদের

Ayodhya Dispute: সাক্ষী মহারাজ বলেন যে এই মন্দির নির্মাণে হিন্দু ও মুসলমানদের একসঙ্গে কাজ করা উচিৎ।

৬ ডিসেম্বর শুরু হবে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ; শুনানি শেষের আগেই ঘোষণা বিজেপি সাংসদের

সাক্ষী মহারাজ বলেন যে এই মন্দির নির্মাণে হিন্দু ও মুসলমানদের একসঙ্গে কাজ করা উচিৎ

লখনউ:

সুপ্রিম কোর্টে রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ জমির বিবাদে (Ram Janmabhoomi-Babri Masjid land dispute) শুনানির শেষ দিন হতে চলেছে আজ অর্থাৎ বুধবার। রায় কী হবে সেই দিকেই বহুদিন ধরে তাকিয়ে ভারতবর্ষ। যদিও এত অপেক্ষার মাঝে নেই ভারতীয় জনতা পার্টির (BJP) সাংসদ সাক্ষী মহারাজ (MP Sakshi Maharaj)। শুনানি শেষের আগেই তিনি ঘোষণা করেছেন যে অযোধ্যায় রাম মন্দিরের নির্মাণ শুরু হবে ডিসেম্বর মাস থেকেই। এখানে শেষ না, নির্মাণের দিনক্ষণও বাতলে দিয়েছেন তিনি। সাক্ষী মহারাজ জানিয়েছেন আগামী ৬ ডিসেম্বর থেকে ওই স্থানে রামের মন্দির নির্মাণের কাজ শুরু হবে। 

"আমরা ওয়াক আউট করব": অযোধ্যা শুনানির পরিপ্রেক্ষিতে বললেন প্রধান বিচারপতি

ঘটনাচক্রে, ১৯৯২ সালে অযোধ্যাতে বাবরি মসজিদ যেদিন ভেঙে ফেলা হয়, সেই তারিখটি ছিল ৬ ডিসেম্বর। সাক্ষী মহারাজ বলেন, “যেদিন এই কাঠামোটিকে ভেঙে দেওয়া হয়েছিল সেই তারিখেই মন্দির নির্মাণ শুরু করা উচিত। বিষয়টা একেবারেই যুক্তিগ্রাহ্য।”

সাড়ে ৫ লাখেরও বেশি প্রদীপ জ্বালিয়ে অযোধ্যায় ‘দীপোৎসব' পালনের সিদ্ধান্ত নিল সরকার

নিজের সংসদীয় এলাকা উন্নাওতে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সাক্ষী মহারাজ বলেন, “এই স্বপ্নটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের অক্লান্ত প্রচেষ্টার ফলেই বাস্তবায়িত হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন যে এই মন্দির নির্মাণে হিন্দু ও মুসলমানদের একসঙ্গে কাজ করা উচিৎ। সাক্ষী মহারাজের কথায়, “সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে এই সত্যটি মেনে নিতেই হবে যে বাবর তাদের পূর্বপুরুষ ছিলেন না, তিনি একজন হানাদার ছিলেন।"

More News