সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় আমাদের একসঙ্গে লড়তে হবে, ওআইসির সভায় দাবি সুষমার

 সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় আমাদের একসঙ্গে  রুখতে হবে। ওআইসি-র সভায়  এমনই দাবি করলেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা  স্বারাজ।

সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় আমাদের একসঙ্গে  লড়তে হবে, ওআইসির সভায়  দাবি সুষমার

হাইলাইটস

  • আমাদের একসঙ্গে সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলা করতে হবে, দাবি সুষমার
  • ওআইসির সভায় একথা বলেন মোদী সরকারের বিদেশমন্ত্রী
  • এই প্রথম এই সভায় ডাক পেল ভারত

 সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় আমাদের একসঙ্গে  রুখতে হবে। ওআইসি-র সভায়  এমনই দাবি করলেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা  স্বারাজ।ওআইসি নামক এই  সংগঠনটি তৈরি হয়েছে ৫৭টি ইসলামিক দেশ নিয়ে ।

 সভায় সুষমা পাকিস্তানের নামা না  করে বলেন, আমরা  যদি মানবতাকে রক্ষা করতে চাই  তাহলে যে সমস্ত দেশ সন্ত্রাসকে আশ্রয়  দেয়, অর্থ সাহায্য  করে তাদের আ এ ধরনের কাজ  করা  থেকে সরে আসার বার্তা দেওয়া  উচিত।  তিনি বলেন, সন্ত্রাস এবং চরমপন্থার দুটি আলাদা নাম আছে। কিন্তু এই দুটিই ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা করে  তৈরি হয়।

এই প্রথম এই সভায় হাজির থাকার ডাক পেয়েছে ভারত। পাকিস্তান এই সংগঠনের সদস্য। ইসলামাবাদ চেয়েছিল যাতে  ভারতকে আমন্ত্রণ  জানানো না হয় ।

অভিন্দনকে ফেরাতে বায়ু সেনার বিমান পাঠাতে চাইলেও রাজি হয়নি পাকিস্তানঃ সূত্র

Newsbeep

এই প্রথম এই সভায় হাজির থাকার ডাক পেয়েছে ভারত। পাকিস্তান এই সংগঠনের সদস্য। ইসলামাবাদ চেয়েছিল যাতে  ভারতকে আমন্ত্রণ  জানানো না হয়। পুলওয়ামায় হামলার  পর ভারত পাকিস্তানে এয়ার স্ট্রাইক করে। সে সময় নিজেদের  আপত্তির কথা জানায় ভারত।  কিন্তু তা  শোনা হয়নি। প্রতিবাদে পাক বিদেশমন্ত্রী   জানান তিনি বৈঠকে  অংশ নেবেন না।  

এর আগে  ভারতের এয়ার  স্ট্রাইকের পাকিস্তানের দীর্ঘ দিনের বন্ধু চিনের মাটিতে  দাঁড়িয়ে এয়ার স্ট্রাইকের পক্ষে  জোরাল সওয়াল করেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বারাজ। তিনি জানান সন্ত্রাস দমন করতে  পাকিস্তান কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলেই পদক্ষেপ করেছে ভারত। একই সঙ্গে পুলওয়ামার ঘটনা  নিয়ে  ভারতের নাগরিকদের মধ্যে  যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে  সেটাও তুলে ধরেন সুষমা। বলেন আবার হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে বলেই  স্ট্রাইক করেছে ভারত।