সৌদির "বাস দুর্ঘটনায় বেদনাহত" : ৩৫ জন বিদেশির মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী মোদির

Saudi Accident: সৌদির সংবাদসংস্থা জানিয়েছে যে, আহতদের আল-হামনা হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে এবং এই দুর্ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে

সৌদির

আহতদের "দ্রুত আরোগ্য" কামনা করেছেন PM Narendra Modi

নয়া দিল্লি:

সৌদি আরবের মদিনার (Medina) কাছে বাস দুর্ঘটনায় (Saudi Accident) নিহত ৩৫ জন বিদেশিদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। ওই দুর্ঘটনায় আহত হয়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন আরও ৪ জন। "সৌদি আরবের মক্কার কাছে একটি বাস দুর্ঘটনার সংবাদ দেখে অত্যন্ত বেদনাহত হয়েছি। যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই। আহতদের দ্রুত আরোগ্যের বিষয়ে প্রার্থনা করছি", টুইটে লেখেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। জানা গেছে, মক্কা থেকে মদিনা যাওয়ার পথে ওই বাস দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ৩৫ জন তীর্থযাত্রীর। বুধবার মদিনা শহরের কাছে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। আহতদের আল-হামনা হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। পুলিশ সূত্রে খবর, তীর্থযাত্রীরা একটি বেসরকারি বাসে করে মদিনার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। কিন্তু মদিনা শহরে বাসটি ঢোকার কিছু আগে একটি ভারী মালবাহি গাড়ির সঙ্গে ওই বাসের সংঘর্ষ হয়। দুটো গাড়িই যথেষ্ট গতিতে যাচ্ছিল। ফলে ওই দুর্ঘটনাটিও বড় আকার নেয়।

বাংলা থেকে বৃন্দাবনগামী বাস উল্টে আহত কমপক্ষে ২৫

প্রধানমন্ত্রী দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে টুইট করেন।

বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও টুইট করে দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, "সৌদি আরবে আজ দুঃখজনক বাস দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই। আমাদের কনস্যুলেট @ সিজিআইজেদদাহকে দুর্ঘটনার সাথে জড়িত ভারতীয়দের বিশদ বিবরণ জানতে অনুরোধ করেছি"।

বুধবার পশ্চিম সৌদি আরব শহরের কাছে "একটি বেসরকারি চার্টার্ড বাস" এবং "একটি ভারী গাড়ির (লোডার)" সংঘর্ষের ফলে ওই দুর্ঘটনা ঘটে বলে সৌদির সংবাদসংস্থা মদিনা পুলিশের এক মুখপাত্রের বক্তব্য তুলে ধরে জানিয়েছে।

বাসটিতে আগুন ধরে যায়। শুধু তাই নয় বাসটির জানলাগুলিও আগুনের ফলে প্রচণ্ড বিস্ফোরণে ছিটকে বেরিয়ে যায়।

ফুটপাতে ঘুমন্ত তীর্থযাত্রীদের উপর দিয়ে চলে গেল বাস, মৃত একই পরিবারের ৭ জন

দুর্ঘটনায় যারা মারা গেছেন তাঁরা সবাই এশিয়ান ও আরব হজযাত্রী বলে স্থানীয় সূত্র খবর। আহত ৪ জনকে আল-হামনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে যে দুর্ঘটনাটি কীভাবে ঘটেছে তা জানতে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

২০১৮ সালের এপ্রিল মাসেও, সৌদি আরবের পবিত্র শহর মক্কা যাওয়ার পথে একটি বাসের সঙ্গে তেলবাহী একটি ট্রাকের ধাক্কায় মারা যান ৪ ব্রিটিশ তীর্থযাত্রী এবং আহত হন কমপক্ষে ১২ জন।

এর আগে ২০১৭ সালের জানুয়ারিতেও মক্কা তীর্থযাত্রা করার পরে সেখান থেকে মদিনায় যাওয়ার সময় একটি মিনিবাস দুর্ঘটনায় একটি ২ মাসের শিশু সহ ৬ ব্রিটিশ নিহত হন।

দেখুন ১৬.১০.২০১৯-এর সেরা খবর:

More News