'বাত্তি অফ বাটার অন'! ৯ মিনিট 'অন্ধকার সময়'-এ আমূল দাওয়াই

একহাতে লন্ঠন আর একহাতে মোমবাতি কচি মেয়েটির। পাশে এত্তোবড় লোগো, 'বাত্তি অফ বাটার অন'! 

'বাত্তি অফ বাটার অন'! ৯ মিনিট 'অন্ধকার সময়'-এ আমূল দাওয়াই

বাত্তি অফ বাটার অন!

নয়া দিল্লি:

কে বলেছে করোনা (Coronavirus) শুধুই কাঁদাচ্ছে? নিয়ম ভাঙা, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ নিয়ে মিম তৈরি হয়ে বেদম হাসাচ্ছে দুর্দিনের বাজারেও। ৫ এপ্রিল লকডাউনে (Lockdown) রাত ৯টায় ৯ মিনিটের জন্য সারা দেশের আলো নিভিয়ে মোমবাতি, টর্চ, মুঠোফোন বা প্রদীপ জ্বালানোর নির্দেশ দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। ভিডিও কনফারেন্সে এই ঘোষণা ছড়াতেই মিমের বন্যা সোশ্যাল জুড়ে। বাকি ছিল আমূল ইন্ডিয়া (Amul)। তারাও দিনের দিনে, রবিবার মিম শেয়ার করল সোশ্যালে। কার্টুন দেখে এত দুখেও হেসে খুন দেশবাসী। সবার মুখে একটাই কথা, লা-জবাব আমূল গার্ল। 

২৫ সেকেন্ডে কীভাবে স্যানিটাইজড করবেন সারা শরীর? দেখে নিন

কী আছে এই কার্টুনে? একহাতে লন্ঠন আর একহাতে মোমবাতি কচি মেয়েটির। পাশে এত্তোবড় লোগো, 'বাত্তি অফ বাটার অন'! এই কার্টুন পোস্টারটি শেয়ার করে সংস্থার পক্ষ থেকে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী মোদি রবিবার, ৫ এপ্রিল রাতে ৯ মিনিটের জন্য দেশের মানুষকে মোমবাতি এবং বাতি জ্বালানোর আবেদন করেছেন। তখন তো বাটার বা মাখন চলতেই পারে!

আমূলের এই কার্টুন সবার ভীষণ পছন্দ হয়েছে। সোশ্যালে পোস্ট হতেই অজস্র মন্তব্যের বান ডেকেছে। 

প্রধানমন্ত্রী মোদি চলতি সপ্তাহেই একটি ভিডিও বার্তায়, রবিবার অর্থাৎ ৫ এপ্রিল ভারতবাসীদের তাদের ঘরের আলো বন্ধ রাখতে অনুরোধ করেন। পাশাপাশি ৫ এপ্রিল রাত ৯ টায় মোমবাতি, প্রদীপ এবং মোবাইলের ফ্ল্যাশলাইট ৯ মিনিটের জন্য জ্বালিয়ে রাখতেও অনুরোধ করেছেন।

হার মানল করোনাও! সামাজিক দূরত্ব মেনে ভিডিও কলে 'নিকাহ' যুগলের

৫ এপ্রিল সকালে প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে বিশেষ ঘোষণা, 'মোমবাতি জ্বালানোর আগে দয়া করে কেউ স্যানিটাইজারে (Sanitizer) হাত পরিষ্কার করবেন না!  মোদির যুক্তি, স্যানিটাইজারে অ্যালকোহল মেশানো থাকে। যার থেকে বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।' মোদির পাশাপাশি সেনাবাহিনিও জনগণের কাছে একই আবেদন জানিয়েছে। বদলে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া যেতে পারে বলে মত প্রধানমন্ত্রীর। 

Click for more trending news


Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com