চিনকে আরও একটি ধাক্কা দিতে 5G নিয়ে বৈঠক করলেন মোদি সরকারের মন্ত্রীরা

ভারতে 5G পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সরবরাহে আগ্রহী চিনা সংস্থা হুয়াই, এই পরিস্থিতিতে ওই চিনা সংস্থাকে বরাত দেওয়া হবে কিনা তা নিয়েই বৈঠক

চিনকে আরও একটি ধাক্কা দিতে 5G নিয়ে বৈঠক করলেন মোদি সরকারের মন্ত্রীরা

India China Standoff: মোদি মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক, বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • চিনের বিরুদ্ধে আরও কড়া পদক্ষেপ নিতে মোদি মন্ত্রিসভার বৈঠক
  • 5G নিয়ে আলোচনা
  • চিনা সংস্থা হাওয়াই 5G পরিষেবার সাথে সংযুক্ত সরঞ্জামের সরবরাহে ইচ্ছুক
নয়া দিল্লি:

ভারত ও চিনের সঙ্গে উত্তেজনা (India China Standoff) যত বাড়ছে ততই যেন কড়া পদক্ষেপের পথে হাঁটছে মোদি সরকার। রবিবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর 'মন কি বাত' অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদি ভারত-চিন উত্তেজনার বিষয়ে বলেন, "লাদাখে ভারতের দিকে যারা চোখ তুলে তাকিয়েছে তারা যোগ্য জবাব পেয়েছে। ভারত যদি বন্ধুত্ব করতে জানে, তবে কীভাবে পাল্টা চ্যালেঞ্জ জানানো উচিত সেটাও জানে।" এবার যেন তাই সেই জবাব দেওয়ার রাস্তাতেই হাঁটছে ভারতে। অর্থনৈতিকভাবে চিনকে ধাক্কা দিতে ভারতে যেসব চাইনিজ অ্যাপ ব্যবহার করা হচ্ছিল সেগুলো নিষিদ্ধ করার ঘোষণা করে ভারতের তথ্য় প্রযুক্তি মন্ত্রক। এবার 5G নিয়েও কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভাবনা কেন্দ্রের। ভারতে 5G পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সরবরাহ করতে আগ্রহী চিনা সংস্থা হুয়াই। আদৌ এই পরিস্থিতিতে ওই চিনা সংস্থাকে যন্ত্র সরবরাহের বরাত দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে আলোচনা করতেই বৈঠকে বসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah), বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর (S Jaishankar), বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গয়াল (Piyush Goyal) এবং যোগাযোগমন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদ। একটি সূত্র এই বৈঠক সম্পর্কে জানিয়েছে, 5G পরিষেবার সরঞ্জাম সরবরাহের বিষয় নিয়েই আলোচনা করেন তাঁরা।

৫৯ টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তে উদ্বিগ্ন চিন, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছে তারা

গত বছর ভারতে 5G পরিষেবার পরীক্ষামূলক প্রকল্পে অংশ নেওয়ার বিষয়ে চিনা সংস্থা হুয়াইকে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ক্রমাগতই এই চিনা সংস্থাকে এসবের বাইরে রাখার জন্যে চাপ দিচ্ছে। আপাতত ভারতে 5G নিলাম এক বছরের জন্যে পিছিয়ে গেছে। এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ২০২১ সালের মে মাস পর্যন্ত হুয়াইয়ের সমস্ত দ্রব্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

"সরকারি নির্দেশ মেনেই পরবর্তী পদক্ষেপ", বললো টিকটক ইন্ডিয়া

ভারত-চিন সীমান্ত সমস্যা ফলে, দেশের পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে হুয়াইয়ের পক্ষে এদেশে ব্যবসা করা কঠিন হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে মন্ত্রীদের ওই বৈঠকে ঠিক কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেই সম্পর্কে বর্তমানে কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।

সোমবার ভারতে ৫৯ টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় সরকার। সেই সিদ্ধান্তে উদ্বিগ্ন চিন জানায় যে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছে তারা। ভারতের তথ্য় প্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, ভারতীয় গোয়েন্দারা জানিয়েছেন যে, অ্য়ান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্য়াটফর্মে থাকা মোবাইল অ্য়াপকে অপব্য়বহার করে গ্রাহকদের গোপনীয়তা লঙ্ঘনের চেষ্টা করা হচ্ছে। সেই কারণেই সবদিক বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। ভারতের এই কড়া পদক্ষেপ জানার পরেই নড়েচড়ে বসে চিন। সেদেশের বিদেশমন্ত্রকের ঝাও লিজিয়ান বলেন, "ঘটনা জানার পর চিন গভীরভাবে উদ্বিগ্ন এবং পরিস্থিতি যাচাই করে দেখছে"।