This Article is From Dec 09, 2019

‘‘প্রতিবাদ বন্ধ করুন’’: নাগরিক বিল প্রসঙ্গে উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলিকে অমিত শাহ

লোকসভায় বিলটি পেশ করার সময় অমিত শাহ বলেন, ‘‘সমস্ত উদ্বেগের সমাধান করা হয়েছে। আমরা উত্তর-পূর্বের নাগরিকদের সামাজিক ও ভাষাগত স্বাতন্ত্র্যকে রক্ষা করব।

অমিত শাহ বলেন, এই আইন অন্য দেশের বিপন্ন সংখ্যালঘুদের সাহায্য করবে।

নয়াদিল্লি:

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) সোমবার উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিকে (North-Eastern States) নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল (Citizenship Bill) নিয়ে প্রতিবাদ বন্ধ করতে আবেদন জানিয়ে বললেন, যথাযথ ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ করা হবে যাতে আঞ্চলিক পরিচয় সুরক্ষিত হয়। এদিন লোকসভায় বিলটি পেশ করার সময় অমিত শাহ বলেন, ‘‘সমস্ত উদ্বেগের সমাধান করা হয়েছে। আমরা উত্তর-পূর্বের নাগরিকদের সামাজিক ও ভাষাগত স্বাতন্ত্র্যকে রক্ষা করব। কারও ভয় পাওয়ার প্রয়োজন নেই। আমরা যথেষ্ট করেছি। প্রতিবাদ এবার বন্ধ হওয়া দরকার।'' উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ১১ ঘণ্টা বনধ ডেকেছিল ‘নর্থ ওয়েস্ট স্টুডেন্টস ইউনিয়ন'। তাদের অন্যতম অভিযোগ ছিল, এই সংশোধনী বিলের সাহায্যে পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের অ-মুসলিম নাগরিকদের ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার অর্থ ‘‘উত্তর-পূর্বের অস্তিত্বকে চুরি করা।''

অমিত শাহ জানান, আন্তঃসীমান্ত পারমিটের দ্বারা নাগাল্যান্ড ও মিজোরাম সুরক্ষিত। মণিপুরকেও এরমধ্যে ঢুকিয়ে নেওয়া হয়েছে এবিষয়ে তাদের আবেগের কথা মাথায় রেখে। তিনি বলেন, ‘‘অন্যদিকে মেঘালয় সুরক্ষিত ষষ্ঠ অনুসূচি দ্বারা।''

তিনি আরও বলেন, অনেকের সঙ্গে আলোচনা করে তবে এই বিল পেশ করা হচ্ছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘‘এমন নয়, যে আমি কারও সঙ্গে কথা বলিনি এই নিয়ে। আমি ১৪০টি বেসরকারি সংস্থা ও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলেছি। সেই সঙ্গে প্রতিটি উত্তর-পূর্ব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গেও কথা বলেছি ১১৯ ঘণ্টা ধরে। তাদের সমস্ত পরামর্শ এই বিলে রাখা হয়েছে।''

এদিন অমিত শাহ আরও বলেন, এই আইন অন্য দেশের বিপন্ন সংখ্যালঘুদের সাহায্য করবে।