This Article is From Dec 01, 2019

বিরোধী বিক্ষোভের মধ্যেই আজ মহারাষ্ট্র বিধানসভার অধ্যক্ষ নির্বাচন

শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের মনোনীত প্রার্থী কংগ্রেস বিধায়ক নানা প্যাটোলেমের বিরুদ্ধে বিধায়ক কিষণ এস কাঠোরকে প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করেছে বিজেপি

বিরোধী বিক্ষোভের মধ্যেই আজ মহারাষ্ট্র বিধানসভার অধ্যক্ষ নির্বাচন

Maharashtra assembly: মহারাষ্ট্র বিধানসভায় রবিবার অধ্যক্ষ নির্বাচন করা হবে, তারপরে রাজ্যপালের ভাষণে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হবে।

মহারাষ্ট্রে মিটেও যেন মিটছে না রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব। শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের আস্থা ভোটের সময় বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়নবিশের নেতৃত্বে বিক্ষোভ দেখানো হয় সে রাজ্যের (Maharashtra) বিধানসভায়। আজ (রবিবার) আবার মহারাষ্ট্র বিধানসভার (Maharashtra Assembly) অধ্যক্ষ নির্বাচনের জন্যে ভোটাভুটি রয়েছে, সকাল ১১ টা নাগাদ এই ভোটগ্রহণ হবে বলে জানা গেছে। এদিকে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের মনোনীত প্রার্থী কংগ্রেস বিধায়ক নানা প্যাটোলেমের বিরুদ্ধে বিধায়ক কিষণ এস কাঠোরকে প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করেছে বিজেপি। ফলে অধ্যক্ষ (Maharashtra Assembly Speaker) নির্বাচনের ক্ষেত্রেও জোট এবং বিজেপির মধ্যে লড়াই জমে উঠবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

শনিবার, অন্তর্বর্তীকালীন অধ্যক্ষ কালিদাস কোলাম্বকারকে সরিয়ে অস্থায়ী অধ্যক্ষ হিসেবে এনসিপির দিলীপ ওয়ালসে পাতিলকে নিয়োগ করার বিষয়টিকে কেন্দ্র করেই প্রতিবাদ করেই দেবেন্দ্র ফড়নবিশের নেতৃত্বে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। এমনকি ঘটনার প্রতিবাদে আস্থা ভোটের আগে মহারাষ্ট্র বিধানসভা থেকে ওয়াকআউটও করে বিজেপি।

মহারাষ্ট্রে আস্থাভোটে জয়ী শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোট

শনিবার যেভাবে অন্তর্বর্তীকালীন অধ্যক্ষকে সরিয়ে দেয় জোট, সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে বিজেপি, এমনটাই জানা গেছে দলীয় সূত্রে। "শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোট আস্থা ভোটে হেরে যাওয়ার ভয় পেয়েছিল বলেই ভারতের ইতিহাসে এই প্রথমবার এইভাবে অধ্যক্ষ বদল করা হয়", বলেন দেবেন্দ্র ফড়নবিশ। এই সপ্তাহের শুরুতেই মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেন ফড়নবিশ, তিনি বিধানসভায় জানান এনসিপি নেতা অজিত পাওয়ার সমর্থন প্রত্যাহার করে নেওয়ার ফলেই ইস্তফা দিতে হয় তাঁকে।

"বিধানসভায় সংবিধানের রীতিনীতি লঙ্ঘন করে ব্যবসায়ীক লেনদেন করা হচ্ছে। অধিবেশনে কোনও নিয়মই ঠিকভাবে মানা হচ্ছে না", বিধানসভার অধিবেশন থেকে ওয়াকআউট করে সাংবাদিকদের বলেন দেবেন্দ্র ফড়নবিশ।

মহারাষ্ট্রে অস্থায়ী স্পিকার নিয়োগ নিয়ে ক্ষুব্ধ বিজেপি সুপ্রিম কোর্টে যেতে পারে

এদিকে বিরোধী দল বিজেপির দাবি খারিজ করে এনসিপি মুখপাত্র নবাব মালিক বলেছেন, রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারির সম্মতিতেই ওয়ালসে পাতিলকে প্রোটেম স্পিকার বা অন্তর্বর্তীকালীন অধ্যক্ষ করা হয়েছিল। তিনি আরও জানান, শনিবার আস্থা ভোট পরিচালনার জন্য বিশেষ অধিবেশনটি রাজ্যপালের অনুমোদনের পরেই ডাকা হয়েছিল।

মহারাষ্ট্র বিধানসভায় আজ (রবিবার) স্থায়ী অধ্যক্ষ নির্বাচন করা হবে এবং তারপরে রাজ্যপালের ভাষণের মাধ্যমে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হবে।

মহারাষ্ট্রে নতুন সরকার, বিরোধী হিসাবে কতটা সহযোগিতা করবেন ফড়নবিশ? দেখুন ভিডিও: