আমিও ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ ছিলামঃ দেবেগৌড়া

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের কার্যকাল নিয়ে তৈরি সিনেমা ‘দ্য  অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ মুক্তির আগে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক দানা বেঁধেছে।

আমিও  ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ ছিলামঃ দেবেগৌড়া

 ১৯৯৬ সালের লোকসভা নির্বাচনের পর এক  জটিল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় দেশে।

হাইলাইটস

  • ‘দ্য অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ মুক্তির আগে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক
  • বিতর্কে নতুন মাত্রা যোগ করলেন আরেক প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়া
  • তাঁর দাবি তিনি নিজেও ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ ছিলেন
বেঙ্গালুরু:

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের কার্যকাল নিয়ে তৈরি সিনেমা ‘দ্য  অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার' মুক্তির আগে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। এবার সেই বিতর্কে নতুন মাত্রা যোগ করলেন আরেক প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়া। তাঁর দাবি তিনি নিজেও ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার' ছিলেন। ২০০৪ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী  ছিলেন মনমোহন। তাঁর কার্যকাল নিয়ে বই লেখেন সঞ্জয় বারু। ২০০৪ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত  মনমোহনের মিডিয়া পরামর্শদাতা  ছিলেন সঞ্জয়।  সেই বইটিকে ভিত্তি করেই ছবি তৈরি হয়েছে। কংগ্রেসের  দাবি ছবিতে এমন কয়েকটি বিষয় আছে যা লোকসভা  নির্বাচনের আগে তাদের ভাবমূর্তি ক্ষতি করবে। আর সেই উদ্দেশ নিয়েই ছবি তৈরি হয়েছে বলে  তাদের দাবি।

কড়া নিরাপত্তার মধ্যে আজ বাংলাদেশে ভোট, জিতলে ইতিহাস গড়বেন হাসিনা

এবার এই বিতর্কে যুক্ত হয়ে পড়লেন দেবেগৌড়া। তিনি বলেন, ‘ আমি এই অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার নিয়ে চর্চা করিনি। তবে আমি নিজেও একজন অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার  ছিলাম।

দুধের মধ্যে মাদক মিশিয়ে মহিলা কনস্টেবলকে ধর্ষণের অভিযোগ সহকর্মীর বিরুদ্ধে

১৯৯৬ সালের লোকসভা নির্বাচনের পর এক  জটিল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় দেশে। ফলাফল প্রকাশিত হওয়ার পর দেখা  যায় কোনও দল একক সংখ্যাগোরিষ্ঠতা পায়নি। এমতাবস্থায় পশ্চিমবঙ্গের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর নাম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে উঠে আসে। তাঁর দল সিপিএমের একটি অংশ এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে। তখনই প্রধানমন্ত্রী হন দেবেগৌড়া। কংগ্রেস এবং আরও কয়েকটি দলের সাহায্য নিয়ে সরকার গড়েন তিনি। আর সেভাবেই ১৯৯৬ সালের পয়লা   জুন থেকে পরের বছর ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী পদে থাকেন তিনি। এরপর কংগ্রেস সমর্থন প্রত্যাহাত করায় দেবেগৌড়াকে পদত্যাগ করতে হয়। এদিকে বিজয় রাটনাঙ্কুর পরিচালিত এবং অনুপম খের অভিনীত ছবিটি মুক্তি পাবে ১১ জানুয়ারি।