শরিকি দ্বন্দ্বের মধ্যেই শুক্রবার দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী-সনিয়া গান্ধির সঙ্গে উদ্ধবের বৈঠক

শুক্রবার দিল্লি সফরে উদ্ধব ঠাকরে । সেই সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধির সঙ্গে বৈঠক করবেন উদ্ধব ।

শরিকি দ্বন্দ্বের মধ্যেই শুক্রবার দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী-সনিয়া গান্ধির সঙ্গে উদ্ধবের বৈঠক

চলতি সপ্তাহের শুরুতে সিএএ আর এনপিআরের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। (ফাইল)

হাইলাইটস

  • একাধিক ইস্যুতে মহারাষ্ট্রের জোট সরকারের শরিকি বিবাদ তুঙ্গে
  • সেই বিবাদেরম মধ্যেই শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী ও সনিয়া গানহদির সঙ্গে বৈঠক
  • দিল্লি গিয়ে বৈঠক করবেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে
নয়াদিল্লি:

শরিকি আপত্তি উড়িয়ে রাজ্যজুড়ে এনপিআর (NPR) লাগু করতে উদ্যোগী হয়েছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে (Uddhav Thackeray)। এই উদ্যোগের জেরে সে রাজ্যের মহা-অঘোরী জোট সরকারে অবিশ্বাসের বাতাবরণ। এমনটাই দাবি করেছে বিরোধী শিবির। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার দিল্লি সফরে উদ্ধব ঠাকরে । সেই সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধির সঙ্গে বৈঠক করবেন উদ্ধব । এমনটাই খবর শিবসেনা সূত্রে। বৃহস্পতিবার দলের মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত (Sanjay Raut) মারাঠিতে একটা টুইট করেছেন। সেই টুইটে লেখা, "হ্যাঁ মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে প্রধানমন্ত্রীজির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এটা নিছক একটা সাক্ষাৎ।এর পিছনে অন্য কারণ খুঁজতে যাবেন না।" মহারাষ্ট্রের মহা-অঘোরী জোট সরকারের অপর দুই শরিক কংগ্রেস এবং এনসিপি, কেন্দ্রের আনা সংশোধিত নাগরিক আইনের (CAA) ঘোর বিরোধী। এমনকি, এনপিআর, হাত ধরে এনআরসিকে নিয়ে আসবে। এমন দাবি করছে কংগ্রেস ও এনসিপি। কিন্তু নাগরিকত্ব যাচাই ও পঞ্জী তৈরির নিরিখে এই দুটি প্রক্রিয়ার পক্ষে মুখ খুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। 

‘‘চিন বুঝেছে সবসময় পাকিস্তানকে সমর্থন করতে পারবে না'': সেনাপ্রধান

তিনি বলেছিলেন, সিএএ আর  এনআরসি পৃথক। এবং এনপিআর পৃথক। রাজ্যে সিএএ লাগু হলে কাউকে উদ্বিগ্ন হতে হবে না। তার যুক্তি ছিল, কেন্দ্র এনআরসি নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্তে পৌছায়নি। টায়ে এই রাজ্যে এটা রূপায়িত হবে না। তারপরেই বাড়ে শরিকি দ্বন্দ্ব। এই জোট সরকারের মুখ্য কারিগর শরদ পাওয়ার বলেছেন, আমি উদ্ধব ঠাকরেকে বোঝানোর চেষ্টা করব। ইতিমধ্যেই এলগার পরিষদের একটা মামলা হস্তান্তর করা হয়েছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ-কে। সেই নিয়ে আপত্তি তুলেছিল অন্যতম শরিক এনসিপি। সে দলের প্রধান শরদ পাওয়ার বলেছিলেন, যে দিন রাজ্যের মন্ত্রীরা পুলিশি তদন্তের মুখোমুখী হয়েছিল, সেদিনই এই মামলা এনআইএ-কে দেওয়া হয়। 

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘অতুলনীয় স্বাগত' জানানো হবে, জানাল বিদেশ মন্ত্রক

সেই মন্ত্যবের পর উদ্ধব ঠাকরে টুইট করেছিলেন, ভিমা-কোরেগাঁও মামলা যাতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী কোনও সংস্থার হাতে না যায়, টা আমি নিশ্চিত করব। 

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com