‘‘আমরা যদি এমন ভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাই...’’: একুশের সভায় বিজেপিকে আক্রমণ মমতার

তৃণমূল নেত্রী বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন, ‘‘আমরা যদি এমন ভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাই... প্রতিরোধ করতে পারবেন তো?’’

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
‘‘আমরা যদি এমন ভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাই...’’: একুশের সভায় বিজেপিকে আক্রমণ মমতার

Martyrs Day Rally: একুশের মঞ্চে বিজেপিকে আক্রমণ করলেন‌ মমতা।


কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. ৩৪ বছরের বাম শাসনে ‘শহিদ’দের উদ্দেশে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন মমতা
  2. বিপুল জনস্রোতের সামনে বিজেপির উদ্দেশে আক্রমণের সুর মমতার কণ্ঠে
  3. রবিবারের দুপুরে চেনা মেজাজেই ছিলেন তৃণমূল নেত্রী

শহিদ মঞ্চ (Martyrs Day Rally) থেকেই বিজেপিকে আক্রমণ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। প্রতিবছর এই মঞ্চ থেকেই তৃণমূল সুপ্রিমো বার্তা দেন, সমাবেশে উপস্থিত লক্ষ লক্ষ দলীয় সমর্থক-নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে। কীভাবে শাসকদলের ভিত আরও পোক্ত হবে রাজ্যে এবং রাজ্য ছাড়িয়ে গোটা দেশে, সেই বার্তা তো থাকেই। একই সঙ্গে মমতার দেখানো পথেই সারাবছর তাঁদের কর্মসূচি পালন করেন তৃণমূল কর্মীরা। এবারেও তার ব্যতিক্রম নয়, না। তবু, এবারে যেন সুর-তালে বাজছে না শাসকদল। অনেক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মতে, যে বিজেপিকে বাংলা এবং দেশ থেকে নস্যাৎ করতে গতবারের শহিদ মঞ্চ থেকে ডাক দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে ভালো ফল করে সেই বিজেপি-ই এখন শাসকদলের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী। পথের কাঁটা।

কাটমানির পাল্টা ব্ল্যাকমানি ফেরানোর দাবি তুললেন মমতা

তিনি ৩৪ বছরের বাম শাসনে ‘শহিদ'দের উদ্দেশে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। তার সঙ্গে মানুষের কাছে আবেদন জানান, দেশে গণতন্ত্র ফেরাতে লড়াই করতে। তৃণমূল নেত্রী বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন, ‘‘কান খুলে শুনে নিন। তৃণমূল এই বার্ষিক সভা করে আসছে ২৬ বছর ধরে। কোনও এক বিজেপি নেতা হুমকি দিয়েছেন, তৃণমূল নেতাদের বাস থেকে টেনে নামাবেন। আমি বিজেপিকে বলছি, আমরা যদি এমন ভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাই... প্রতিরোধ করতে পারবেন তো?'' সমাবেশে হাজির বিপুল জনস্রোতের সামনে এভাবেই বিজেপির উদ্দেশে এই কথা বলেন মমতা।

তৃণমূল নেতাদের হুমকি দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলি, বিজেপিতে যোগ দিতে বলা হচ্ছে: মমতা

প্রতি বছরের মতো এবারেও ২১ জুলাইয়ের (21 July) শহীদ মঞ্চে আয়োজন করা হয়েছিল মধ্য কলকাতায়। সমাবেশ নিয়ে এবারে যথেষ্ট দ্বিধা ছিল শাসকদলের অন্দরেই। কারণ, ভিড় টানতে মঞ্চে তারকা সমাবেশ যাঁর মাধ্যমে ঘটে সেই প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতা বিচারাধীন। তিন তিনেক আগেই টলিপাড়ার একঝাঁক টেলি শিল্পী যোগ দিয়েছেন প্রতিপক্ষ শিবিরে। পাশাপাশি, একাধিক কাউন্সিলর, বিধায়কের সঙ্গে দল ছেড়েছেন শুভ্রাংশু রায়ের মতো নেতারা।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচন "রহস্য, ইতিহাস নয়", বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এর মধ্যেই শাসকদলের এই সমাবেশকে (Martyrs Day Rally) শনিবার অর্থাৎ গত সন্ধেয় সার্কাস বলে ব্যঙ্গ করেছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, এই সমাবেশের আয়োজন না করে শাসকদলের উচিত, সবার আগে জনগণের কাটমানি ফেরত দেওয়া। প্রসঙ্গত, কাটমানি বা সরকারি সুবিধে পাইয়ে দেওয়ার পরিবর্তে সাধারণে থেকে বিধায়ক-নেতা-মন্ত্রীদের ঘুষ খাওয়া অভিযোগকে হাতিয়ার করে গত জুন মাস থেকে বারেবারে সরব হয়েছে গেরুয়া শিবির।

যদিও দিলীপ ঘোষের এই অভিযোগ নস্যাৎ করে কলকাতার মেয়র ও শাসকদলের প্রথম সারির নেতা ফিরহাদ হাকিমের দাবি, ২১ জুলাইয়ের (21 July) সমাবেশ যাতে সফল না হয় তারই চেষ্টায় রয়েছে বিজেপি। উল্লেখ্য,  দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে কলকাতা প্রশাসনের কাছে এফআইআর জমা দিয়েছে শাসকদল।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................