ভারত সফরের আগে বিজেপির স্লোগান ঘুরিয়ে ব্যবহার করলেন মাইক পম্পেও

মাইক পম্পেও (Mike Pompeo)  বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদী (PM Modi  ) প্রচারের সময় বলতেন মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায় (Modi Hain to Mumkin Hain) ।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

প্রধানমন্ত্রী ,বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে  কাজ  করতে আমি খুবই আগ্রহী: মাইক পম্পেও


ওয়াশিংটন: 

হাইলাইটস

  1. বিজেপির স্লোগান ধ্বনিত হল মার্কিন বিদেশ সচিবের কণ্ঠে
  2. এ মাসের শেষের দিকেই তাঁর ভারতে আসার কথা
  3. 'আমি বিশ্বাস করি দুটি দেশের একযোগে অনেক কিছু করার আছে'

ভারত সফরের আগে বিজেপির স্লোগান ধ্বনিত হল   মার্কিন বিদেশ সচিবের কণ্ঠে। ভারত ও আমেরিকার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত একটি সম্মেলনে হাজির হয়ে মাইক পম্পেও (Mike Pompeo)  বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদী (PM Modi  ) প্রচারের সময় বলতেন মোদী হ্যায় তো মুমকিন হ্যায় (Modi Hain to Mumkin Hain) । মানে মোদী থাকলেই সম্ভব। আমিও সে কথা মাথায় রেখেই ভারতে  যাচ্ছি। এ মাসের শেষের দিকেই তাঁর ভারতে আসার কথা। এ ব্যাপারে তিনি বলেন দিল্লি সফর নিয়ে আমি আশাবাদী। প্রধানমন্ত্রী মোদী এবং নতুন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে  কাজ  করতে আমি খুবই আগ্রহী। এরপরেই তিনি বলেন, ‘আশা  করি ভারতের বন্ধুরা ব্যবসার  ক্ষেত্রে এতকাল যে  বাধা রেখেছিল সেগুলি সরিয়ে নেবে। দুটি দেশ অনেক  সম্ভবনার সামনে দাঁড়িয়ে আছে। আমি বিশ্বাস করি দুটি দেশের  একযোগে অনেক কিছু করার আছে।  এবারের সফরে ভারতের  পাশাপাশি  শ্রীলঙ্কা। জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়াও যাবেন পম্পেও। জুন মাসের ২৪ থেকে  ৩০ তারিখের মধ্যেই সম্পন্ন হবে  তাঁর সফর।

অন্য একটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেতৃত্বে ভারতের সঙ্গে  নিরাপত্তা সংক্রান্ত অনেক চুক্তি হয়েছে। শুধু তাই নয় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আমেরিকার পদক্ষেপও দৃঢ় হয়েছে। এভাবেই দুদেশ একে অপরের আরও কাছাকাছি এসেছে  বলে মনে করেন তিনি।

মার্কিন বিদেশ সচিব যখন এ কথা বলছেন তার দিন কয়েক আগেই ভারতকে দেওয়া বাণিজ্যিক সুবিধা  প্রত্যাহার করে নিচ্ছে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। এখন  মার্কিন মুলুকে কোনও রকম শুল্ক ছাড়াই ভারতের ৫.৬ বিলিয়ন ডলারের সামগ্রী প্রবেশ করতে পারে। সেই  সুবিধাই প্রত্যাহার করে নিতে চলেছে  ট্রাম্প প্রশাসন। নিজের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে মার্কিন কংগ্রেসকে লেখা চিঠিতে রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ‘ভারত এতদিন জেনারালাইসজড সিস্টেম অফ প্রেফারেন্স (জিএসপি)-এর মধ্যে ছিল। এখন সেটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হচ্ছে।'

 কেন এমন কাজ  করছেন তাঁর ব্যাখাও দিয়েছেন ট্রাম্প।  তিনি বলেছেন, ‘ভারত সরকার এবং রাষ্ট্রসঙ্ঘের  বিভিন্ন বিষয়কে পর্যবেক্ষণ কররা পর আমি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি বুঝতে পেরেছি, ভারত তাদের দেশের বাজারে ব্যবসার ক্ষেত্রে এ ধরনের সুবিধা দেবে না। '



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................