"হিপোক্রিট, প্রিভিলেজড ক্লাব", বি-টাউনের 'ক্ষমতাশালী' অংশের বিরুদ্ধে সরব শেখর কাপুর-অনুভব সিনহা

রণবীর শোরে লেখেন, "অনেকে জন্মগত ভাবে নেপোটিজমকে দত্তক নিয়েছেন। একমাত্র ক্ষমতার অলিন্দে যাঁরা ঘুরবে, তাঁরাই সুযোগ পাবে।"

সুশান্ত সিং রাজপুত। (ফাইল ছবি) (ছবি সৌজন্য: Instagram)

হাইলাইটস

  • নিখিল দ্বিবেদী, রণবীর শোরে, শেখর কাপুর সরব হয়েছেন
  • কিছু টুইটের বিরোধ করে এই প্রতিবাদ
  • রবিবার বান্দ্রার ফ্ল্যাটে ঝুলন্ত উদ্ধার হয় সুশান্তের দেহ
মুম্বই:

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর একাধিক টুইট করা হয়েছে। শোকবার্তায় ভরে সেই টুইট ঘিরে এবার আড়াআড়ি বিভাজিত বলিউড। রীতিমতো টিনসেল টাউনে গৃহযুদ্ধ। কিছু টুইটের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলিউডের দ্বিচারিতা, হিপোক্র্যাসি আর নেপোটিজমকে কাঠগড়ায় তুলেছেন রণবীর শোরে, অনুভব সিনহা, নিখিল দ্বিবেদীর মতো তারকারা। ইতিমধ্যে একটা আক্রমণাত্মক টুইট করেন পরিচালক শেখর কাপুর। "যাঁরা ওকে ভরতে দিল", এভাবেই নাম না করে কটাক্ষ করেছেন ব্যান্ডিট কুইনের পরিচালক। পাশাপাশি নেপোটিজমকে বিঁধে সোমবার সংবাদমাধ্যমের সামনে সরব হয়েছেন কঙ্গনা রানাউত। এদিন সকাল থেকেই নেটিজেনদের তোপের মুখে ছিল করণ জোহর ও আলিয়া মাটির টুইট। কফি উইথ করণের একটি পর্বের প্রসঙ্গ টেনে আলিয়া ভাট ও করণ জোহরকে বেঁধেছেন নেটিজেনরা। স্পষ্টতই হিপোক্র্যাসি বলে সরব তাঁরা।

তাঁর মধ্যেই নিখিল দ্বিবেদী লেখেন, "বলিউডের হিপোক্র্যাসি সামনে এল সুশান্তের আত্মহত্যার পর। অনেক মহান ব্যক্তিরা বলছেন তাঁরা নাকি সুশান্তের পাশে ছিলেন।" নাম না করে এই টুইট করলেও, উদ্দেশ্য কে বা কারা বুঝতে অসুবিধা হয়নি কারও।

রণবীর শোরে লেখেন, "অনেকে জন্মগত ভাবে নেপোটিজমকে দত্তক নিয়েছেন। একমাত্র ক্ষমতার অলিন্দে যাঁরা ঘুরবে, তাঁরাই সুযোগ পাবে।"

দেখুন সেই টুইটগুলো: 

অনুভব সিনহা যা লিখেছেন:

রণবীর শোরের টুইট:

শেখর কাপুরের বিতর্ক উসকে দেওয়া সেই টুইট: 

(আপনার পরিচিত কেউ মানসিক অবসাদের শিকার হলে তাঁকে নিকটবর্তী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যান)

হেল্পলাইন: AASRA: 91-22-27546669 (24 hours) Sneha Foundation: 91-44-24640050 (24 hours) Vandrevala Foundation for Mental Health: 1860-2662-345 and 1800-2333-330 (24 hours) iCall: 022-25521111 (Available from Monday to Saturday: 8:00am to 10:00pm) Connecting NGO: 18002094353 (Available from 12 pm - 8 pm)