অসমে এনআরসির পর, মুম্বইয়ের কাছে তৈরি হচ্ছে ডিটেনশন সেন্টার: সূত্র

মহারাষ্ট্রে তৈরি হতে পারে ডিটেশন সেন্টার, কয়েকমাস পরেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন, মুম্বইয়ে অবৈধ বাংলাদেশীদের বসবাস এবং কাজের অভিযোগ তুলেছে শিবসেনা

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
অসমে এনআরসির পর, মুম্বইয়ের কাছে তৈরি হচ্ছে ডিটেনশন সেন্টার: সূত্র

গোয়ালপাড়া জেলায় ডিনেটশন সেন্টার তৈরির উদ্দ্যেশে ৪৬ কোটি টাকা খরচ করেছে অসম সরকার


মুম্বই: 

অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের জন্য ডিটেনশন সেন্টার তৈরি করার জন্য জমি চেয়ে নবি মুম্বই প্ল্যানিং অথরিটিক চিঠি লিখল মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রদফতর। সূত্র মারফৎ, কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে খবরের সত্যতা স্বীকার করা হয়েছে, এক পক্ষেরও কম সময়ে আগে অসমে চালু করা হয়েছে এনআরসি বা জাতীয় নাগরিকপঞ্জী, সেখানে চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লক্ষ মানুষ, দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনবসতি সম্পন্ন রাজ্যেও এমনটা করার সম্ভাবনা রয়েছে। নগর  মহারাষ্ট্রের শিল্পোন্নয়ন নিগমে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, নেরুল এলাকায় দুই থেকে তিন একর জমি চেয়ে তাদের থেকে জমি চাওয়া হয়েছে, এই এলাকাটি জনবসতি এবং বাণিজ্যিক এলাকা এবং মুম্বই শহর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে।

“প্রত্যেকটি অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে তাড়ানো হবে”, অসমে বললেন অমিত শাহ

দফতরের তরফে কোনওরকম চিঠি দেওয়ার কথা অস্বীকার করা হয়েছে, তবে চলতি বছরের গোড়ার দিকে, কেন্দ্রের নির্দেশিকা অনুযায়ী, দেশের যে সমস্ত এলাকায় বেশী অনুপ্রবেশকারীর বাস রয়েছে, সেখানে ডিনেটশন সেন্টার তৈরি করতে হবে।

মহারাষ্ট্রে তৈরি হতে পারে ডিটেশন সেন্টার, কয়েকমাস পরেই মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচন, মুম্বইয়ে অবৈধ বাংলাদেশীদের বসবাস করা এবং কাজ করার অভিযোগ তুলেছে শিবসেনা। গত সপ্তাহে সংবাদসংস্থা এএনআইকে শিবসেনা নেতা অরবিন্দ সাওয়ান্ত বলেন, “এলাকার প্রকৃত নাগরিকদের সমস্যার সমাধানে অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জী তৈরির প্রয়োজন ছিল। সেই কারণে আমরা এনআরসির পদক্ষেপকে সমর্থন জানাই...আমরা এখান থেকে বাংলাদেশীদের তাড়াতে মুম্বইয়েও একই পদক্ষেপ চাই”।

Assam Citizens' List: "ভারত কি ধর্মশালা নাকি!": শরণার্থী প্রসঙ্গে বিজেপির হিমন্ত বিশ্ব শর্মা

চলতি বছরের গোড়ার দিকে, রাজস্থানে লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে অমিত শাহ বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারীদের “উইপোকা” বলে মন্তব্য করেন।

২০১৮ বিধানসভা নির্বাচন এবং ২০১৯ লোকসভা নির্বাচন, দুটিতেই নাগরিকত্ত্বের প্রমাণ ছিল বিজেপির ইস্তেহারের অন্যতম ইস্যু।

জুলাইয়ে রাজ্যসভায় অমিত শাহ বলেন, “দেশের মাটির প্রতিটি ইঞ্চিতে” থাকা অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করতে চায় সরকার।

রবিবার উত্তর-পূর্ব কাউন্সিল বৈঠকেও তিনি বলেন, “একজন অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকেও থাকতে দেওয়া হবে না”।

"শুধু অসম কেন! সংসদেও তবে NRC হোক!” কেন্দ্রকে আক্রমণ অধীর রঞ্জন চৌধুরীর

বিহারের মন্ত্রিসভার বিজেপি সদস্যরাও সেখানে একই আওয়াজ তুলেছে, সেখানে জনতা দল ইউনাইটেডের সঙ্গে জোটে রয়েছে বিজেপি।

জেলের ভিতরে আপাতত অসমে ডিটেনশন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। গোয়ালপাড়া জেলায় ৩,০০০ লোক থাকার মতো ১০টি ডিনেটশন সেন্টার তৈরি করছে রাজ্য সরকার, তার জন্য খরচ প়ড়বে ৪৬ কোটি টাকা।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................