নেতা হিসেবে মোদীর 'ক্যারিশ্মা’ জওহরলাল নেহেরু, রাজীব গান্ধীর মতোই: রজনীকান্ত

দক্ষিণের মহাতারকা রজনীকান্ত মোদীকে অভিহিত করেছেন জওহরলাল নেহরু ও রাজীব গান্ধীর মতো ‘করিশ্মাসম্পন্ন নেতা’ হিসেবে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

দক্ষিণের মহাতারকা রজনীকান্ত মোদীকে অভিহিত করেছেন ‘করিশ্মাসম্পন্ন নেতা’ হিসেবে


নয়াদিল্লি: 

দক্ষিণের মহাতারকা রজনীকান্ত (Rajinikanth) জানিয়ে দিলেন, তিনি নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) প্রধানমন্ত্রী পদে দ্বিতীয়বারের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। তিনি মোদীকে অভিহিত করেছেন জওহরলাল নেহরু ও রাজীব গান্ধীর মতো ‘করিশ্মাসম্পন্ন নেতা' হিসেবে। কেবল রজনীকান্তই নন, দক্ষিণের আর এক সুপারস্টার কমল হাসানকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে ৩০ মে-র শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে। এবারের লোকসভা নির্বাচনে (Lok Sabha Election 2019) বিজেপি- নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট বিপুল ভাবে জয়ী হয়ে ক্ষমতায় এসেছে। দ্বিতীয় বারের জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। চেন্নাইতে রজনীকান্ত সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘এই জয় মোদীর জয়। তিনি একজন ‘ক্যারিশ্মাসম্পন্ন নেতা'। ভারতে নেহরু ও রাজীব গান্ধীর পরে, মোদীই এখন ‘ক্যারিশ্মাটিক নেতা'।'' 

রাহুলকে বোঝাতে বিকেলে বাড়িতে যাচ্ছেন নেতারা, সকালেই গেলেন প্রিয়াঙ্কা

কংগ্রেসের সংকট ও তাদের সভাপতি রাহুল গান্ধীর পদত্যাগ নিয়েও তাঁর মত জানান রজনীকান্ত। তিনি বলেন, ‘‘ওঁর পদত্যাগ করা উচিত নয়। ওঁর উচিত প্রমাণ করা যে উনি এটা করতে পারেন। গণতন্ত্রে বিরোধীদলেরও শক্তিশালী হওয়া উচিত।''

গত সপ্তাহে যখন গণনার পরে বিজেপির বিপুল জয়ের খবর পেয়ে রজনীকান্ত টুইট করেন— ‘‘শ্রদ্ধেয় প্রিয় নরেন্দ্র মোদীজি অনেক অভিনন্দন... আপনি পেরেছেন। ঈশ্বর আশীর্বাদ করুন।''

গত বছর রজনীকান্ত ঘোষণা করেছিলেন, তিনি রাজনীতিতে আসছেন। কিন্তু এখনও তাঁর দলের নাম জানাননি মহাতারকা। অন্য মহাতারকা কমল হাসানের দল মাক্কাল নিধি মাইয়াম অবশ্যে নির্বাচনে লড়েছে। তিনি জানিয়েছেন, পরবর্তী বিধানসভা নির্বাচনে, যেটি ২০২১ সালে হবে, সেখানে তাঁর দল ২৩৪ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

৬৮ বছরের রজনীকান্ত সাধারণত নিজের রাজনৈতিক মতামত সম্পর্কে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেন। তবে এবারের ভোটের আগে রজনীকান্ত জানিয়েছিলেন, নরেন্দ্র মোদী, তাঁর বিরুদ্ধে লড়াই করতে আসা ১০ জনের থেকে বেশি শক্তিশালী। বিরোধীদের মহাজোট নিয়ে মুখ খুলতে গিয়ে রজনীকান্ত একথা জানান। তিনি বলেন, ‘‘যখন ১০ জন একজনের বিরুদ্ধে লড়ে, সেক্ষেত্রে কে বেশি শক্তিশালী? ওই ১০ জন, নাকি যাঁর বিরুদ্ধে সবাই লড়ছে, তিনি?'' 

লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও সংখ্যাগরিষ্ঠ হওয়ার পথে এগিয়ে যেতে পারে বিজেপি

কিন্তু রজনীকান্ত ২০১৬ সালে নোটবন্দির সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করেছিলেন।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................