প্রথমবার JU-র ছাত্র সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী দিল এবিভিপি

বিজেপির এই ছাত্র শাখা ইঞ্জিনিয়ারিং এবং কলা বিভাগের কেন্দ্রীয় প্যানেলের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে প্রার্থী দিয়েছে।

প্রথমবার JU-র ছাত্র সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী দিল এবিভিপি

রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি যাদবপূর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন। (ফাইল ছবি)

হাইলাইটস

  • যাদবপূর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী দিল এবিভিপি
  • কেন্দ্রীয় প্যানেলের ৮টি পদের জন্য প্রার্থী দিয়েছে তারা
  • সিআর পদেও লড়বে এবিভিপি
কলকাতা:

রবিবার, ৯ ফেব্রুয়ারি যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন (JUSU poll)। সেই ভোটে লড়তে প্রথমবার প্রার্থী দিল অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ বা এবিভিপি (ABVP)। বিজেপির এই ছাত্র শাখা ইঞ্জিনিয়ারিং (Engineering and Arts) এবং কলা বিভাগের কেন্দ্রীয় প্যানেলের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে প্রার্থী দিয়েছে।সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছে ওই ছাত্র শাখার যুগ্ম-সম্পাদক শ্যামাশ্রী কর্মকার। জানা গেছে, কেন্দ্রীয় প্যানেলে দু'জন সভাপতি, দু'জন সম্পাদক, আর চার জন সহ-সম্পাদকের পদ আছে।সেই সবকটি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে এবিভিপি। পাশাপাশি সিআর পদের জন্য প্রার্থী দিয়েছে ওই ছাত্র সংগঠন। কলা এবং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ মিলিয়ে মোট ৮০টি আসন। সেই আসনেই লড়াই বাম ছাত্র সংগঠন এসএফআই আর এবিভিপি'র।

নবান্ন বনাম রাজ ভবন দ্বন্দ্বে ইতি! রাজ্যের তৈরি বাজেট বক্তৃতা পাঠ Governor-এর

ভোটে লড়া প্রসঙ্গে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা বিভাগের এবিভিপি'র ইউনিট সভাপতি শুভদীপ কর্মকার বলেছেন, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় মানেই বাম ছাত্রদের গড়, এ কথা ভুল। গত কয়েক বছরে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতীয়তাবাদী ছাত্র সংগঠনও সক্রিয় হয়েছে। আশা করি এই নির্বাচনে আমরা ভাল ফল করব। তিনি বলেন, "নিত্য ঘেরাও আর প্রতিবাদ কর্মসূচির জেরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠনপাঠনের পরিবেশ নষ্ট হয়েছে। পাশাপাশি তোলা হচ্ছে দেশ-বিরোধী স্লোগান। এই সবের থেকে মুক্তি পেতে পরিবর্তন আনতে পড়ুয়ারা আমাদেরই ভোট দেবে।" 

Nirbhaya: অপরাধীদের নতুন মৃত্যু পরোয়ানার আর্জি খারিজ 

এদিকে এবারও ভোটে ভাল ফল করবে এসএফআই, দাবি করেছেন বামপন্থী ওই ছাত্র সংগঠনের নেতা দেবরাজ দেবনাথ। তিনি বলেন, "বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধীন পরিবেশে মাথা তুলে দাঁড়াতেই পারবে না দক্ষিনপন্থী সংগঠনগুলো। সাধারণ পড়ুয়ারা, নিয়মিত সিএএ আর এনআরসি বিরোধী জমায়েতে আমাদের পাশে ছিলেন। সেখান থেকেই প্রমাণ এই ক্যাম্পাসে এবিভিপি'র কোনও জায়গা নেই।" তবে কেবল এসএফআই আর এবিভিপি না, টিএমসিপি আর আইসাও এই নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে বলে খবর। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)
Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com