৭ বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণ, বিক্ষোভ,বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা

স্থানীয়রা অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবিতে ঘেরাও করে থানা, ভাঙচুর করা হল গাড়ি, গাড়ির জানলার কাঁচ

বর্তমানে নির্যাতিতা শিশুটির শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানিয়েছে পুলিশ

হাইলাইটস

  • এক ব্যক্তি মোটর সাইকেলে এসে শিশুটিকে অপহরণ করে ধর্ষণ করে:পুলিশ
  • এলাকার উত্তেজিত জনতা থানা ঘেরাওয়ের পাশাপাশি ভাঙচুরও চালায় কয়েকটি গাড়িতে
  • জয়পুরের ১৩টি থানা এলাকার ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে
জয়পুর:

এক শিশুকন্যাকে ধর্ষণের ঘটনা। সোমবার সন্ধেয় জয়পুরে (Jaipur)একটি সাত বছরের শিশুকন্যাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগে উত্তাল রাজস্থানের জয়পুর। ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় থানা( local police station) ঘেরাও করে অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবি করে মানুষজন। ভাঙচুর করা হয় বেশকিছু গাড়িও (smashing vehicles) । ঘটনার পর এলাকার উত্তপ্ত পরিস্থিতি সামাল দিতে জয়পুরের কিছু অঞ্চলের ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে। জানা গেছে, জয়পুরের শাস্ত্রীনগর এলাকায় নিজের বাড়ির বাইরে খেলা করছিল শিশুকন্যাটি। ঠিক সেই সময়েই এক মোটরসাইকেল আরোহী এসে তাঁকে সেখান থেকে তুলে নিয়ে যায়। বেশ কিছুক্ষণ পর শিশুটির পরিবার তাঁর খোঁজ শুরু করলেও এলাকার কোথাও তাঁকে পাওয়া যায় না। তখনই নড়েচড়ে বসে শিশুটির পরিবার। ঘটনার ঘণ্টা দুয়েক পর শিশুটিকে তাঁর বাড়ি থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে অমানিশা খালের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়।বর্তমানে জয়পুরের এক হাসপাতালে শিশুটির চিকিৎসা চলছে এবং তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গেছে।

ভয়ঙ্কর! ধর্ষণের পর ইঁট দিয়ে মাথা থেঁতলে খুন ১১ বছরের নাবালিকা

“লোকটি শিশুটিকে বেল্ট দিয়েও মারধর করে, তাঁর কপালে বেশ কয়েকটি সেলাইও দিতে হয়। শিশুটির উপর নির্যাতন চালিয়ে বাড়ি থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে ওই খালের ধারে ফেলে রেখে যায় অভিযুক্ত”,জানিয়েছেন নির্যাতিতা শিশুর পরিবারের এক সদস্য।  ওই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পরে ফুঁসে ওঠেন এলাকার মানুষজন। অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবিতে স্থানীয় থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা, ভাঙচুর করা হয় গাড়িও।তবে ওই ভাঙচুর ও এলাকায় অশান্তি ছড়ানোর অভিযোগে জড়িত সন্দেহে ১৬ জনকে গ্রেফতার(Arrest) করেছে পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ বাহিনীও। মঙ্গলবার সন্ধেয়,স্থানীয় কয়েকজন নেতার সঙ্গে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠকের পর পুলিশ জানায়, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে শাস্ত্রীনগর,রামগঞ্জ সহ ১৩টি থানা এলাকার ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দক্ষিণ কলকাতার ৮৫

বছরের বৃদ্ধাকে বেধড়ক মারল নার্স! গ্রেফতার সেবিকা

তবে স্থানীয় মানুষজন জানিয়েছেন জনতার উত্তেজিত হওয়ার পেছনে কারণ হল মাত্র ১০ দিন আগেই ওই এলাকায় একই কায়দায় বছর চারেকের একটি শিশুকন্যাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে একইভাবে ফেলে রেখে যাওয়া হয়।

ধর্ষণের ঘটনার এফআইআর দায়েরের পরেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা যায় নি। তবে স্থানীয়দের অনুমান যে, পরপর ঘটে যাওয়া দুটি ঘটনার পেছনে একই লোকের হাত রয়েছে।নির্যাতিতা শিশুটির বর্ণনার ভিত্তিতে অভিযুক্তের ছবি এঁকেছে পুলিশ এবং তাঁকে খুঁজে বের করার জন্যে ১৪ টি আলাদা দল গঠন করেছে।

“এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ কোনো গুজব ছড়ালে তা কড়া হাতে দমন করা হবে।নির্যাতিতা(Raped) শিশুকন্যাটির চিকিৎসা চলছে এবং সে স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে।অভিযুক্তকে খুঁজে বের করার জন্যে আমরা ১৪ টি পুলিশ দল তৈরি করেছি”, জানিয়েছেন জয়পুরের পুলিশ কমিশনার আনন্দ শ্রীবাস্তব।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com