কাশ্মীরে নিকেশ জইশের আইইডি বিশেষজ্ঞ! নাইকুর পর বড় সাফল্য বলছে বাহিনী

পুলওয়ামার গ্রামে সূত্র মারফৎ খবর পেয়ে এদিনের যৌথ অভিযান চালিয়েছিল সেনা; সিআরপিএফ আর কাশ্মীর পুলিশ

কাশ্মীরে নিকেশ  জইশের আইইডি বিশেষজ্ঞ! নাইকুর পর বড় সাফল্য বলছে বাহিনী

পুলওয়ামায় এদিন সংঘর্ষ হয় জঙ্গি-যৌথ বাহিনীর।

হাইলাইটস

  • কাশ্মীরে বাহিনীর হাতে নিহত তিন জনই জঙ্গি
  • এই তিনজনের মধ্যে একজন আইইডি বিশেষজ্ঞ। পুলওয়ামা-কাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড
  • একমাসের মধ্যে দ্বিতীয় বড় সাফল্য, বলছে বাহিনী
নয়াদিল্লি/শ্রীনগর:

হিজবুল জঙ্গি রিয়াজ নাইকু (Riyaz Naikoo) নিকেশের পর ফের বড়সড় সাফল্য উপত্যকায় (Jammu and Kashmir)। বুধবার সকালে নিরাপত্তাবাহিনী এবং জঙ্গি সংঘর্ষে নিহত তিন সন্ত্রাসবাদী  জানা গিয়েছে; নিহতরা জইশ-ই-মহম্মদ (Jaish terrorist) জঙ্গিগোষ্ঠীর সদস্য। পুলওয়ামায় নিহতদের মধ্যে একজন আবদুল রহমান। যাকে ফৌজি ভাই হিসেবে চিনত কাশ্মীর। জইশ জঙ্গিগোষ্ঠীর তরফে আইইডি তৈরিতে সিদ্ধহস্ত ছিল এই ফৌজি ভাই। এদিন এমনটাই জানিয়েছে; জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ।   মাস খানেক আগে একইভাবে এনকাউন্টারে নিকেশ হয়েছিল রিয়াজ নাইকু। তারপর ফৌজিভাই-সহ অন্য দুই জঙ্গির নিকেশ অনেকটা বাড়িয়েছে যৌথ বাহিনীর আত্মবিশ্বাস। এমনটাই দাবি; রাজ্য পুলিশ সূত্রে।কাশ্মীর রেঞ্জের আইজি বিজয় কুমার বলেছেন; "একমাসের মধ্যে এটা দ্বিতীয় বড় সাফল্য। সেনা; সিআরপিএফ আর কাশ্মীর পুলিশকে এর জন্য ধন্যবাদ। অন্য দুই নিহত জঙ্গির পরিচয় জানা যায়নি।" তিনি জানিয়েছেন, গত সপ্তাহে পুলওয়ামায় যে গাড়ি বোমা উদ্ধার হয়েছিল, তার মাস্টারমাইন্ড ছিল আবদুল রহমান।

পুলওয়ামার গ্রামে সূত্র মারফৎ খবর পেয়ে এদিনের যৌথ অভিযান চালিয়েছিল সেনা; সিআরপিএফ আর কাশ্মীর পুলিশ। 

গত সপ্তাহে নিরাপত্তা বাহিনী পুলওয়ামাতে আইডি বোঝাই গাড়ি বোমা আটক করে। জানা গিয়েছে, সেই গাড়িতে ৪০-৪৫ কেজি আইডি ছিল। ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি যেভাবে সিআরপিএফ কনভয়ে হামলা চালানো হয়েছিল; একইভাবে এই হামলার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল।
 

(এএনআই ও পিটিআই থেকে সংগৃহীত)