৩ মহিলাকে নির্যাতন করার অভিযোগে অসম পুলিশের ২ কর্মীকে বরখাস্ত করা হল

তিন বোনের মধ্যে একজন জানিয়েছে যে, ৯ সেপ্টেম্বর গুয়াহাটির সতগাওঁ থেকে তাকে এবং তার দুই বোনকে তুলে আনে পুলিশ

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
৩ মহিলাকে নির্যাতন করার অভিযোগে অসম পুলিশের ২ কর্মীকে বরখাস্ত করা হল

তাদেরকে বন্দুক দেখিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগ আছে (ছবি প্রতীকাত্মক)


গুয়াহাটি: 

ঘটনাস্থল অসমের (Assam) দাররাং জেলা, তিন বোন দুই পুলিশ কর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছে যে, এই দুই পুলিশ কর্মী তাদেরকে পুলিশ স্টেশনের মধ্যে উলঙ্গ করিয়ে নির্যাতন চালায় তারা। এই অভিযোগের ভিত্তিতে এই দুই কর্মীকে বরখাস্ত করেছে অসম পুলিশ।  এই তিনজনের মধ্যে এখন আবার গর্ভবতী ছিলেন, এই নির্যাতনের কারণে গর্ভপাত হয়ে যায় তার। পুলিশ সূত্রানুসারে, বুড়হা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক জানিয়েছেন, এই ঘটনার জেরে একজন মহিলা পুলিশ কন্সটেবলকেও বরখাস্ত করা হয়েছে। সিপঝাড় পুলিশ স্টেশনে এই তিন বোন অভিযোগ দায়ের করার পরে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।  অসমের একটি স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে পুরো বিষয়টা জানানোর পরে, বিষয়টি সকলের দৃষ্টিগোচর হয়।  

তিন বোনের মধ্যে একজন জানিয়েছে যে, ৯ সেপ্টেম্বর গুয়াহাটির সতগাওঁ থেকে তাকে সহ তার দুই বোনকে তুলে আনে পুলিশ, তাদের সাথে তার স্বামীও ছিল। তাদের বুড়হা পুলিশ স্টেশনে নিয়ে আসা হয়।  

এই তিন বোনের বিরুদ্ধে তাদের ভাইকে কিডন্যাপ করার অভিযোগ করা হয়েছিল। তাদের ভাই ভিন্ন ধর্মের এক মহিলাকে বিবাহ করার জন্য তারা নাকি তাকে কিডন্যাপ করেছে, এমনি অভিযোগ তোলে সেই মেয়ে ও মেয়ের বাড়ির লোকেরা। এই তিন বোনের মধ্যে একজন, যার বয়স ২৮ বছর, গৃহবধূ, সে দারাং -এর পুলিশ সুপারেন্টেন্ডেন্ট অমৃত ভূঁইয়ার কাছে জানায় যে, তার দুই বোন ও স্বামী সহ তাদের তুলে নিয়ে আসা হয় পুলিশ স্টেশনে। মহেন্দ্র শর্মা নামক পুলিশ অফিসার তাদের উলঙ্গ করে মারধর করে বলে জানিয়েছে সে, তার সাথে বিনীতা বোরো নামক একজন মহিলা কনস্টেবলের নামও নেয় সে।  

তাদেরকে বন্দুক দেখিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগ আছে, এমনকি রেহাই দেননি গর্ভবতী মহিলাকে। যদিও পুলিশ সূত্র থেকে জানানো হয়েছে, মহিলা সত্যিই গর্ভবতী ছিল কিনা তা জানা যাবে মেডিকেল টেস্টের পর। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বর্ষীয়ান পুলিশ অফিসারকে। 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................