মুক্তি যুদ্ধে নিহত ১২ জওয়ানকে বিশেষ মরনোত্তর সম্মান দিল বাংলাদেশ

বাংলাদেশের  মুক্তি যুদ্ধে নিহত ১২ জন ভারতীয় জওয়ানকে মরনোত্তর সম্মান দিল বাংলাদেশ সরকার।

মুক্তি যুদ্ধে নিহত ১২ জওয়ানকে বিশেষ  মরনোত্তর সম্মান দিল বাংলাদেশ

হাইলাইটস

  • মুক্তি যুদ্ধে নিহত ১২ জওয়ানকে বিশেষ মরনোত্তর সম্মান দিল বাংলাদেশ
  • রবিবার ফোর্ট উলিয়ামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সেনা বাহিনী
  • এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন পূর্বাঞ্চলের সেনা প্রধান
কলকাতা:
বাংলাদেশের  মুক্তি যুদ্ধে নিহত ১২ জন ভারতীয় জওয়ানকে মরনোত্তর সম্মান দিল বাংলাদেশ সরকার। বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে রবিবার ফোর্ট উলিয়ামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সেনা বাহিনী। সেখানেই এই সম্মান প্রদান করে বাংলাদেশ সরকার।
8cdd1m0g

 

সে দেশের সরকারের এই উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন পূর্বাঞ্চলের সেনা প্রধান লেফটেনেন্ট জেনারেল এম এম নারভেন। তিনি বলেন, মানবিকতার খাতিরে  আমরা এই যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ি। আর তা থেকেই বাংলাদেশের জন্ম। দুটি দেশের  যুদ্ধ কারণে তৃতীয় দেশের উৎপত্তি ইতিহাসে খুব বেশি বার হয়নি। ভারতীয় সেনা বাহিনীর অবদানকে মান্যতা দিতে ১৬০০   জওয়ানকে সম্মানিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর ভারতীয় সেনার কাছে  আত্মসমর্পণ করে পাক বাহিনী। সে কথা মাথায় রেখে প্রতিবছর পালিত হয় বিজয় দিবস।  কলকাতায় রবিবারের অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন যুদ্ধে প্রাণ হারানো জওয়ানদের পরিবারের সদস্যরা। তাদের মধ্যে সাত স্থল সেনা,  দুই বায়ু সেনা এবং নৌ বাহিনীর এক জওয়ানের হাতে  তুলে দেওয়া হয় বিশেষ স্মারক। 

tqp5mpao

 

যুদ্ধে প্রাণ হারানো জওয়ানদের পরিবারের সদস্যরা। তাদের মধ্যে সাত স্থল সেনা,  দুই বায়ু সেনা এবং নৌ বাহিনীর এক জওয়ানের হাতে  তুলে দেওয়া হয় বিশেষ স্মারক।  

এই  অনুষ্ঠানের আগে  নিয়ম মেনে হল বিজয় দিবসের কর্মসূচি। জাতীয় পতাকা  উত্তোলন করে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন পূরবাঞ্চলের সেনা প্রধান। বায়ু সেনা থেকে শুরু করে নৌ সেনার কর্মী থেকে শুরু করে আধিকারিকরাও উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত সেনা আধিকারিকরা। বাংলাদেশ থেকে  আসা প্রতিনিধি দলে ছিলেন ৩০ জন মুক্তিযোদ্ধা। তারাও মুক্তিযুদ্ধে  যোগ দিয়েছিলেন।