বুরারির বাড়িতে গলায় ফাঁস দেওয়ার সময় 10 জন সদস্য 5' টি টুল ব্যবহার করেছিলেন বলে জানাল পুলিশ

বাবার 'নির্দেশ' তিনি ডায়েরিতে লিখে রাখতে আরম্ভ করেন. 2015 সাল থেকে

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
বুরারির বাড়িতে গলায় ফাঁস দেওয়ার সময় 10 জন সদস্য  5' টি টুল ব্যবহার করেছিলেন বলে জানাল পুলিশ

এই ঘটনায় কোনও 'গডম্যান'-এর জড়িত থাকার সম্ভাবনা খারিজ করে দিয়েছে পুলিশ।


নিউ দিল্লি: 

গত রবিবার দিল্লির বাড়িতে একই পরিবারের 11 জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এগারো জনের মধ্যে দশজনের দেহ ঝুলন্ত অবস্থায় ছিল। পুলিশের সন্দেহ, এই গোটা 'গণ আত্মহত্যা'র ঘটনাটি ওই পরিবারের একজন সদস্যের পরিকল্পনামাফিক ঘটেছিল। গত তিনদিন ধরে সংগ্রহ করা বিভিন্ন তথ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে এই কথাটি অনেকটাই স্পষ্ট যে, ওই পরিবারের সদস্যরা কেউই ভাবতেই পারেননি যে, এর ফলে তাঁদের মৃত্যু হতে পারে। তাঁরা ভেবেছিলেন, 'ঈশ্বর' তাঁদের বাঁচিয়ে দেবেন ঠিকই। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এবং বুরারির বাড়িটি থেকে পাওয়া নোটের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই পরিবারের বয়স্কতম সদস্য  77 বছরের নারায়ণ দেবীর ছোটো ছেলে ললিত ভাটিয়ার মস্তিষ্কপ্রসূত এই পুরো আত্মহত্যার ঘটনাটি। 

বুরারি মৃত্যুরহস্য নিয়ে যে যে তথ্য আমাদের সামনে এল, তার মধ্যে থেকে রইল বাছাই 10'টি তথ্য:

1. কোন মৃতদেহতেই ধস্তাধস্তি বা আঘাতের কোনও চিহ্ন ছিল না।

2. বাড়ির সদস্যদের চোখ ও মুখ ও হাত বাঁধা অবস্থায় হলঘরের ছাদের গ্রিল থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

3. উদ্ধার হওয়া ডায়েরিগুলো থেকে যে নোটগুলি পাওয়া গিয়েছে, তাতে লেখা রয়েছে, "প্রত্যেকে নিজের হাত বেঁধে নেবে। 'ক্রিয়াকর্ম' হয়ে যাওয়ার পর প্রত্যেকেই হাতের বাঁধন খুলে দেবে"। এর থেকে বোঝা যাচ্ছে, ওই পরিবারের প্রত্যেক সদস্যই বিশ্বাস করেছিলেন যে, গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে যাওয়ার পরেও তাঁরা বেঁচে থাকবেন।

4. একমাত্র  77 বছরের নারায়ণ দেবীর দেহটি উদ্ধার করা হয়েছিল তাঁর ঘর থেকে।

5. রাত্রিবেলা ওই পরিবার থেকে 20' টা রুটি অর্ডার করা হয়।  রাত  10:40 নাগাদ সেই রুটি দিয়ে যাওয়া হয় দোকান থেকে। নোটে লেখা আছে, বাড়ির সবথেকে বয়স্ক সদস্য হিসাবে নারায়ণ দেবী সবাইকে রুটি খাইয়ে দেবেন।

 6. নারায়ণ দেবীর ছোটো ছেলে 45 বছরের ললিত তাঁর  10 বছর আগে মৃত বাবার থেকে 'নির্দেশ' পেতেন বলে মনে করতেন।

 7. বাবার 'নির্দেশ' তিনি ডায়েরিতে লিখে রাখতে আরম্ভ করেন, 2015 সাল থেকে।

8. নারায়ণ দেবীর দুই পুত্র ভবনেশ এবং ললিত ছাড়াও এই ঘটনায় তাঁর এক কন্যা, পুত্রবধু সহ নাতি-নাতনিদেরও মৃত্যু হয়।

 9. ডায়েরির এক জায়গায় লেখা আছে, "আমি কাল অথবা পরশু ফিরে আসব। যদি, তা না হয়, তাহলে তার কয়েকদিন বাদেই ফিরে আসব। ললিতকে নিয়ে দুশ্চিন্তা কোরো না। আমি ফিরে এলে ও উত্তেজিত হয়ে থাকবে"।

10. এই ঘটনায় কোনও 'গডম্যান'-এর জড়িত থাকার সম্ভাবনা খারিজ করে দিয়েছে পুলিশ।

 

 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................