This Article is From Jul 09, 2020

কাশ্মীরে বিজেপি নেতা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁর ১০ নিরাপত্তারক্ষীকে

J&K BJP Leader Shot Dead: বিজেপি নেতা ওয়াসিম বারির পাশাপাশি জঙ্গিরা খুব কাছ থেকে গুলি করে হত্যা করে তাঁর বাবা এবং ভাইকেও, তাঁরাও বিজেপি কর্মী ছিলেন

কাশ্মীরে বিজেপি নেতা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁর ১০ নিরাপত্তারক্ষীকে

Jammu and Kashmir: বিজেপি নেতা শেখ ওয়াসিম ও তাঁর বাবা এবং ভাইকে গুলি করে হত্যা করে জঙ্গিরা

হাইলাইটস

  • বান্দিপোরায় বিজেপি নেতা ও তাঁর পরিবারের উপর জঙ্গি হামলা
  • মৃত্যু হয়েছে বিজেপি নেতা শেখ ওয়াসিম ও তাঁর বাবা এবং ভাইয়ের
  • কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগে ওই নেতার ১০ নিরাপত্তারক্ষীকে গ্রেফতার করা হয়েছে
শ্রীনগর:

জম্মু ও কাশ্মীরে (Jammu and Kashmir) বিজেপি নেতা ওয়াসিম বারি এবং তাঁর বাবা-ভাইকে হত্যার (J&K BJP Leader Shot Dead) ঘটনার তদন্তে নেমে নেতার সুরক্ষার দায়িত্বে থাকা ১০ নিরাপত্তারক্ষীকে গ্রেফতার করা হল। বুধবার রাত ৯টা নাগাদ ওই বিজেপি নেতা (Sheikh Wasim) ও তাঁর পরিবারকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি চালায় জঙ্গিরা। প্রাথমিক তদন্তে জানা যায়, হামলার সময় বিজেপি নেতার সঙ্গে ছিলেন না তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ১০ কর্মীই। এরপরেই কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগে ওই ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, বুধবার রাতে যখন একটি দোকানের সামনে বাবা এবং ভাইকে নিয়ে বসেছিলেন বিজেপি নেতা ওয়াসিম, ঠিক তখনই মোটরবাইকে করে এসে কিছু জঙ্গি তাঁদের খুব কাছ থেকে গুলি করে পালিয়ে যায়। সেই সময় তাঁদের আশেপাশে কোনও নিরাপত্তারক্ষীর দেখা পাওয়া যায়নি। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই জঙ্গি হামলার সময় নেতার বাড়ির একতলায় বসেছিলেন তাঁরা। 

জম্মু ও কাশ্মীরে জঙ্গিদের গুলিতে নিহত বিজেপি নেতা, তাঁর বাবা এবং ভাই

জঙ্গি হামলার পর জম্মু ও কাশ্মীরে পুলিশের তরফ থেকে টুইটে জানানো হয়, "জঙ্গিরা বান্দিপোরায় বিজেপি কর্মী ওয়াসিম বারির উপর গুলি চালায়। নির্বিচারে গুলি চালানোর সময় ওয়াসিম বারির পাশাপাশি সেই গুলি গিয়ে লাগে তাঁর বাবা বশির আহমদ ও ভাই উমর বশিরের গায়েও। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, তবে তিনজনই সেখানে মারা যান"।

ফের বিশ্বের দরবারে ভারতকে তুলে ধরবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

জম্মু-কাশ্মীরের বান্দিপোরার জেলা বিজেপি সভাপতি ওয়াসিম বারির হত্যার খবর পেয়ে বুধবার গভীর রাতেই টেলিফোনে বিস্তারিত খবর নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মৃতদের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ব্যক্ত করেন, জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। "টেলিফোনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ওয়াসিম বারিকে যেভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে সেবিষয়ে খোঁজখবর নেন। তিনি ওয়াসিমের পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানিয়েছেন", বলেন তিনি।

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা বলেন, জঙ্গি হামলায় কাশ্মীরে বিজেপি নেতা ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের মৃত্যু সংগঠনের জন্য বড় ক্ষতি। তিনি বলেন, এই আত্মবলিদান বিফলে যাবে না।

জঙ্গিদের হাতে বিজেপি নেতা ওয়াসিমের এ ভাবে সপরিবারে মৃত্যুতে শোকাহত সেখানকার বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা রাম মাধব। বর্ষীয়ান এই বিজেপি নেতার কথায় "দলের তরুণতুর্কি বিজেপি নেতা ওয়াসিম বারির সুরক্ষায় নিরাপত্তারক্ষী দেওয়া হয়েছিল। তা সত্ত্বেও ওয়াসিম বারি, ওঁর ভাই ও বাবার এমন মর্মান্তিক মৃত্যু ভাবতে পারছি না। নিহত নেতার পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা রইল।"

গত বছর মে মাসে কাশ্মীরের অনন্তনাগ জেলায় বিজেপি নেতা গুল মহম্মদ মিরকেও গুলি করে হত্যা করেছিল জঙ্গিরা। তিনি ছিলেন জেলা বিজেপির সহ-সভাপতি।